ঢাকা-দিল্লী সম্পর্ক পাথরের মত শক্ত : মোমেন

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আবদুল মোমেন ঢাকা-নয়া দিল্লী সম্পর্ককে পাথরের মত শক্ত বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি ১০টি ভারতীয় ব্রড গেজ ডিজেল লোকোমোটিভের অভ্যর্থনা উপলক্ষ্যে সোমবার (২৭ জুলাই) এক ভার্চুয়াল সভায় ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্করের সঙ্গে যোগ দেন। এ সময় তিনি বলেন, ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক পাথরের মত শক্ত এবং যৌথ মূল্যবোধ, নীতি এবং আ’ত্মবিশ্বাসের উপর ভিত্তি করে- আমাদের জীবনের প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রকে স্প’র্শ করে।

মোমেনকে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেন, বিশ্বের খুব কম দেশই আমাদের মত ঘ’নিষ্ঠ ভ্রাতৃত্বের সম্পর্ক ভাগাভাগি করে। জয়শ’ঙ্কর আরও বলেন, আমাদের অংশীদারিত্ব আজ এই অঞ্চলের একটি রোল মডেল হিসেবে গড়ে উঠেছে। মোমেন বলেন, গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতৃত্বে অংশীদারিত্বে একটি সুবর্ণ অধ্যায় রচনা করেছে। তিনি বলেন, আমরা অবশ্যই সর্বোত্তম সম্পর্ক উপভোগ করছি। আমি নিশ্চিত আগামী দিনে আমরা আমাদের সম্পর্ককে আরও নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে পারব।

ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে বাংলাদেশের পশ্চিম সীমান্তের দর্শনা-গেদে ইন্টারচেঞ্জ পয়েন্টে লোকোমোটিভ হস্তান্তরকালে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে তাদের মন্তব্য উঠে আসে। বাংলাদেশ ও ভারতের রেলমন্ত্রী যথাক্রমে মো. নুরুল ইসলাম সুজন ও পীযূষ গোযেল ঢাকা ও নয়া দিল্লী থেকে অনুষ্ঠানে যোগ দেন। বাংলাদেশ ও ভারতের মোট ৮টি রেলওয়ে ইন্টারচেঞ্জ পয়েন্ট রয়েছে, যার মধ্যে ৪টি এখন কাজ করছে– পেট্রাপোল (ভারত)-বেনাপোল (বাংলাদেশ), গেদে (ভারত)-দর্শনা (বাংলাদেশ), সিংহাবাদ (ভারত)- রোহনপুর (বাংলাদেশ), রাধিকাপুর (ভারত)-বিরোল (বাংলাদেশ)।

মোমেন বলেন, এটি আমাদের দুই দেশের মানুষকে আরও কাছাকাছি নিয়ে আসতে সাহায্য করবে। অন্যদিকে জয়শঙ্কর বলেন, চলমান মহামারীর এই কঠিন সময়ের নয়াদিল্লী বাংলাদেশকে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত।

তিনি বলেন, আমি সমানভাবে আনন্দিত যে চলমান কোভিড মহামা’রী আমাদের সামগ্রিক সহযোগিতার গতি মন্থর করেনি। – বাসস