আমি খারাপ খেললেই বাদ, কিন্তু অনেকে দলে থেকে যায় : ইমরুল

জাতীয় দলে এমন অনেক ক্রিকেটার আছেন যারা ফর্মে না থাকলেও অটোমেটিক চয়েজের তালিকায় থাকেন। কিন্তু উল্টো চিত্র ইমরুল কায়েসের ক্ষেত্রে। ফর্মে থাকা সত্ত্বেও কা’ঙ্খিতসুযোগ পাননি তিনি। জাতীয় দলেরকোনো ক্রিকেটার চোটাক্রান্ত হলেই সুযোগমিলে কায়েসের। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই জাতীয় দলে আসা-যাওয়ার মধ্যে রয়েছেন কায়েস এতদিন হয়তো অনেক ম্যাচ খেলতে পারতেন যদি নিয়মিত দলে সুযোগ পেতেন।

কিন্তু কারো তেমন সমর্থন পাননি তিনি। জাতীয় দলের অন্যরা যেখানে সমর্থন পেয়ে দলে সুযোগ পান, সেখানে খারাপ খেললেই দল থেকে বাদ পরে যান এই ওপেনার ব্যাটসম্যান। সম্প্রতি পাওয়ারপ্লে কমিউনিকেশন্সের সাথে সরাসরি আড্ডায় নিজের আফসোসের জায়গা নিয়ে কথা বলেছেন ইমরুল কায়েস।তিনি জানান, “বাংলাদেশ দলে খেলাটাকে আমি সবসময় খুব সৌভাগ্যের মনে করি। খুব গর্বের একটা কাজ মনে করি।

আমার কাছে মনে হয়, খেললে আমি হিরো হয়ে যাচ্ছি নাকি কোন অবস্থানে যাচ্ছি এটা বেশি গুরুত্ব দিই না। যখন জাতীয় দলের জার্সি পরে মাঠে নামি তখন মনে হয় আমি আমার দেশকে প্রতিনিধিত্ব করছি। একটা খেলোয়াড়ের কাছে এর চেয়ে বড় চাওয়া আর কিছু হতে পারে না।আমার হয়তো এই সময়ে ২০০ ম্যাচ হয়ে যেতে পারত, এদিক থেকে আমি একটু দুর্ভাগা।

আমার ক্ষেত্রে হয় যে আমি যখন খারাপ খেলি সাথে সাথে বাদ পড়ে যাই। এই বাদ পড়ার পরে ফিরে আমাকে আবার অনেক প্রমাণ করে আসতে হয়। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রে এই জিনিসটা হয় না। কোনো না কোনো ভাবে সমর্থন পেয়ে তারা জাতীয় দলে থেকে যায়। যোগ করেন কায়েস।