এরদোয়ানের প্রাসাদে আমির খান, ভারতজুড়ে সমালোচনা

দীর্ঘদিন ধরে তুরস্ক ও ভারতের কূটনৈতিক সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না। আর এরই মধ্যে ভারতের ‘গাজনী’ খ্যাত অভিনেতা আমির খান রোবাবার (১৬ আগস্ট) তুরস্কের ফার্স্ট লেডি এমিনি এরদোয়ানের সঙ্গে দেখা করেন। টুইটারে আমিরের সঙ্গে সাক্ষাতের তিনটি ছবিও জুড়ে দিয়েছেন এমিনি এরদোয়ান। মুহূর্তেই তা ভাই’রাল হয়ে যায়। এরপর ভারতীয় নাগরিকদের রোষাণলে পড়েছেন আমির।

বিশেষ করে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা সরিয়ে নেওয়ায় ভারতের সমালোচনাও করেছে তুরস্ক। এর মধ্যে বেশ কয়েকটি ইস্যুতে পাকিস্তানের পাশে দাঁড়িয়েছে তুরস্ক। তাই ভারতের স্বাধীনতা দিবসে তুরস্কের ফার্স্ট লেডির সঙ্গে আমিরের সাক্ষাৎকে ভালো চোখে দেখেননি ভারতীয়রা; তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এই বলিউড তারকার প্রতি।

সাক্ষাতে এমিনি কন্যাশিশু মৃ’ত্যুর হার কমানো ও শিক্ষার হার বাড়ানোর ক্ষেত্রে আমিরের ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন। তারকাখ্যাতিকে আমির খান যেভাবে ইতিবাচক সামাজিক পরিবর্তনের ক্ষেত্রে কাজে লাগাচ্ছেন, সে জন্যও তাকে ধন্যবাদ জানান। আমির খানের সিনেমা একই সঙ্গে ব্যবসাসফল ও শিক্ষামূলক, তা–ও বলতে ভোলেননি এমিনি।

জানা গেছে, আমিরের সিনেমা ‘লাল সিং চাড্ডা’ ছবির প্রায় ৭০ শতাংশের শুটিং করেছেন। করোনার জন্য বাকি ৩০ শতাংশের কাজ বাকি ছিল। করোনার মধ্যেই শুটিং করেছেন আমির। তবে লকডাউনের কারণে শুটিং বন্ধ করতে বাধ্য হন তিনি। ভারতে এখনো শুটিং করার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। কিন্তু হাত গুটিয়ে বসে থাকতে রাজি নন আমির খান। তাই নিরাপদ দেশ ও বৈচিত্র্যময় লোকেশন দেখে উড়াল দিয়েছেন তুরস্কে। এখন বাকি অংশের শুটিং হবে সেখানেই।

হলিউডের অস্কারজয়ী ছবি ফরেস্ট গাম্প’–এর রিমেক আমিরের এই ছবি। ছবিটি নির্মাণ করছেন অদ্বৈত চন্দন। ছবিতে আমিরের বিপরীতে দেখা যাবে কারিনা কাপুর খানকে। ২০২১ সালের বড়দিনে মুক্তি পাবে ‘লাল সিং চাড্ডা’।