কোলে সরফরাজের ছেলে, এই ছবিই ধোনিকে পাকিস্তানে জনপ্রিয় করেছে

২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির খেলা চলছে। এর মাঝেই একটা ছবি সোশ্যাল সাইটে ছড়িয়ে পড়ে। ফুটফুটে একটা শিশুকে কোলে নিয়ে পোজ দিয়েছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। চোখ জুড়ানো সেই ছবি পাকিস্তানি ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে ধোনির জনপ্রিয়তা বাড়িয়ে দিয়েছিল কয়েক গুণ। ধোনির অবসর নিয়ে সবাই যখন বিস্মিত, ঠিক সেই সময় পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার বাসিত আলী সেই বিখ্যাত ছবিটি নিয়ে কথা বললেন।

কলকাতার একটি খ্যাতিমান দৈনিককে বাসিত বলেন, ‘একটা ছবি ধোনিকে অসম্ভব জনপ্রিয় করে তুলেছিল পাকিস্তানে। ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সময়ে আমাদের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের ছেলেকে নিয়ে একটা ছবি তুলেছিল ধোনি। তার পর থেকেই আমার দেশের মানুষ ধোনিকে আপন করে নেয়। ওকে দেখে আমাদের মনে হতো খুব কাছের একজন। ধোনির প্রতি সবার ভালোবাসা বেড়ে যায়।’

দুই দেশের মধ্যে যতই রাজনৈতিক শত্রুতা থাক, ক্রিকেটারদের মাঝে কিন্তু দারুণ বন্ধুত্ব। তিন বছর আগের সেই চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল ভারত-পাকিস্তান। সেই হাইভোল্টেজ ফাইনালের আগে টিম হোটেলে ধোনি কোলে তুলে নেন পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের ছেলে আবদুল্লাহকে। ওই একটা ছবি দিয়েই ধোন‌ি যেন ভেঙে দেন সীমান্তের বেড়াজাল। ধোনির বিদায়বেলায় তাই পাকিস্তানের ক্রিকেটপ্রেমীরাও শোকার্ত। ইনজামামের মতো তারকাও ধোনির এমন নিশব্দ বিদায় মেনে নিতে পারছেন না।

ধোনির কিপিংয়ের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে বাসিত আলী বলেন, ‘সহজাত উইকেটকিপার বলতে যা বোঝায়, ধোনি সে রকম একজন। কোনো ম্যাচে কি দেখেছেন ধোনি কয়েকটা ক্যাচ ফেলেছে কিংবা স্টাম্পিং মিস করেছে? তাকে ভারতের সেরা উইকেটকিপার বললেও কোনো ভুল হবে না। পাকিস্তানেও ধোনির মতো উইকেট কিপার আসেনি। পাকিস্তানে জন্মালেও ধোনি সুপারস্টার হতো। হাসতে হাসতে পাকিস্তানের প্রথম একাদশে জায়গা করে নিত।’