দীর্ঘ সময় পর ছেলে, ছেলের বউ আর নাতিকে কাছে পেয়ে ভীষণ খুশি মুশফিকের মা

করোনার পর ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত অনুশীলনের প্রথম থেকেই মিরপুর স্টেডিয়ামে ঘাম ঝরা’চ্ছেন করছেন মুশফিকুর রহিম। হ’ঠাৎই জানা যায়, মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) থেকে নিজ শহর বগুড়ায় অনুশীলন করবেন জাতীয় দলের অভি’জ্ঞ এই ক্রিকেটার। তখন কারণটা অজানা থাকলেও খোঁ’জ নিয়ে জানা গেলে মা – বাবাকে দেখতেই ঢাকা থেকে ছুটে বগুড়ায় এসেছেন মি. ডিপেন্ডেবল।

প্রায় ছ’মাস ধ’রে মাঠে ক্রিকেট নেই। তবুও দুইটা ইদ নিজের মা – বাবার সাথে করতে পারেননি মুশফিক। আট মাস থেকে মা – বাবা থেকে দুরে তিনি। কোভিড-১৯ এর কারণে ঢাকাতেই ঘরব’ন্দি সময় পার করতে হয়েছে তাকে। তবে অবশেষে ব’ন্দি জীবন থেকে প্রিয়জনদের দেখতে বগুড়ায় এসেছেন তিনি। এ ব্যাপারে মুশফিকের বাবা মাহবুব হামিদ জানান, ‘সাত-আট মাস বাড়িতে আসেনি। ওর মা ওকে না দেখতে পেরে অ’স্থির হয়ে গিয়েছিল। সে কারণেই ওর আসা।

সামনে লম্বা সময় দেশের বাইরে থাকবে। দীর্ঘ সময় পর ছেলে,ছেলের বউ আর নাতিকে কাছে পেয়ে ভীষণ খুশি তার মা। রোববার আবার ঢাকায় ফিরে যাবে ওরা।’ এদিকে মা’কে দেখতে বগুড়ায় আসলেও নিজের অনুশীলনটা বাদ দিচ্ছেন না দেশের সবচেয়ে পরিশ্রমী এই ক্রিকেটার। লঙ্কা সফরকে সামনে রেখে বগুড়ার শহীদ চাঁন্দু স্টেডিয়ামের আজ নেমে পড়েছিলেন অনুশীলনে।

স্টেডিয়ামের ভেন্যু ম্যানেজার জামিলুর রহমান জামিল জানান, মঙ্গলবার পৌনে ১২টায় মাঠে নামেন মুশফিক। দুপুর প্রায় দেড়টা পর্যন্ত অনুশীলন করেন। বিসিবির নিয়ম অনুযায়ী বগুড়ার এই স্টেডিয়ামে চারদিন অনুশীলন করবেন জাতীয় ক্রিকেট দলের এই নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান।