যুক্তরাজ্যের প্রথম ভাই’রাসরোধী মসজিদ

করোনাভাই’রাস ছড়িয়ে পড়ার পর নিরাপত্তার স্বার্থে যুক্তরাজ্যের মসজিদগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়। তবে অনেকেই ভাইরা’সটির বিস্তার রোধে সত’র্কতামূলক ব্যবস্থা অবলম্বন করে সব কিছু খোলার নির্দেশ দিয়েছে। দ্য টেলিগ্রাফ অ্যান্ড আর্গুসের তথ্য মতে, একটি স্থানীয় মসজিদ ভাই’রাস সংক্র’মণ রোধে ইনফেকশন কন্ট্রোল পি-৪ প্রযুক্তির মেশিন ব্যবহার করেছে।

লিজেট গ্রিনের আল-মারকাজ-উল-ইসলামী মসজিদ ও একটি কমিউনিটি হাব ব্র্যাডফোর্ড হাসপাতালে সেবাবিষয়ক কার্যক্রম থেকে শুরু করে খাবার সরবরাহ পর্যন্ত সব ধরনের সাহায্য করে যাচ্ছে। মসজিদটি আরো সুরক্ষিত করে তোলার ক্ষেত্রে পি-৪ টেকনোলজির ক্যাথরিন বেনসন ৪০ হাজার ডলার ব্যয় করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আল-মারকাজ-উল-ইসলামীর প্রতিষ্ঠাতা মুফতি কাজী হাসান রাজ্জাক বলেছেন, ‘কভিড-১৯-এর সংক্র’মণ মানবজীবনে বিপর্য’য়ের সৃষ্টি করেছে। এই নতুন পদক্ষেপ আমাদের মসজিদে নামাজ পড়তে আসা মুসল্লিদের সুরক্ষা দেবে।’

কিভাবে কাজ করবে

এই প্রযুক্তি মসজিদে আগত মুসল্লিদের শরীরের তাপমাত্রা নিয়’ন্ত্রণ করতে পারবে এবং প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ২০ জনকে শনাক্ত করতে সক্ষ’ম। যাঁদের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি থাকবে তাঁদের কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হবে এবং সেখানেও আবার পরীক্ষা করা হবে।এরপর তাঁরা একটি সিস্টেমের মধ্য দিয়ে যাবেন, যেখানে স্যানিটাইজার স্প্রে করা হবে।

মূল ভবনে মুসল্লিদের প্রবেশের পর সেখানে নিরাপদ ও স্বা’স্থ্যকর বায়ু সঞ্চালনের ব্যবস্থা রাখা হবে। আল-মারকাজ মসজিদে ব্যবহৃত প্রযুক্তি চারটি স্তরে সুরক্ষা দেবে। এর মধ্যে সংক্র’মণ নিয়’ন্ত্রণ, বায়ু পরিশোধন, মেঝে জীবা’ণুমুক্তকরণ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে বলে জানিয়েছেন পি-৪ টেকনোলজির ক্যাথরিন বেনসন।

মসজিদের স্বেচ্ছাসেবকরা ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য কয়েক হাজার প্যাকেট খাবার ও স্বা’স্থ্যসম্মত সরঞ্জাম সরবরাহ করেছেন।

সূত্র: কালের কণ্ঠ।