বিশ্বের নয় দেশেই রয়েছে ১৩৪০০ পারমাণবিক বোমা!

বিশ্বের নয়টি দেশের কাছে বর্তমানে ১৩ হাজার ৪০০টি পারমাণবিক বোমা আছে বলে জানিয়েছে স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউট (সিপ্রি)। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন সংস্থাটিএ তথ্য প্রকাশ করে। তবে এ সব বোমার সংখ্যা কমানোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলেও জানায় ওই প্রতিবেদনে।

রাশিয়া :স্টকহোম আন্তর্জাতিক শান্তি গবেষণা ইনস্টিটিউট (সিপ্রি) তথ্য অনুসারে রাশিয়ার কাছে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি আণবিক বোমা রয়েছে। দেশটিতে এ ধরনের বোমার সংখ্যা ৬ হাজার ৩৭৫টি। ১৯৪৯ সালে রাশিয়া প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা করেছিল।
যুক্তরাষ্ট্র :মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রথম পারমাণবিক বোমা বানিয়েছে এবং একমাত্র দেশ যারা যুদ্ধেও এই অস্ত্র ব্যবহার করেছে। দেশটির কাছে এখন ৫ হাজার ৮০০ টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে।

চীন :৩২০টি পারমাণবিক বোমা আছে চীনের। রাশিয়া বা যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় সংখ্যাটা কম হলেও দেশটি ধীরে ধীরে এই সংখ্যা বাড়াচ্ছে। যেমন- ২০১৯ সালেই তাদের কাছে ২৯০ টি বোমা ছিল। স্থল, আকাশ বা সমুদ্রপথে সেগুলো ছোঁড়া সম্ভব।

ফ্রান্স :ফ্রান্সের কাছে পারমাণবিক ওয়ারহেড আছে ২৯০টি। এগুলোর অধিকাংশই রয়েছে সাবমেরিনে। দেশটির অন্তত একটি সাবমেরিন সবসময় পারমাণবিক বোমা নিয়ে টহল দেয়।

যুক্তরাজ্য :২১৫টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে যুক্তরাজ্যের কাছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য এই দেশটি ১৯৫২ সালে প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা চালায়।

পাকিস্তান : ইতোমধ্যে তিনবার প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়েছে পাকিস্তান। দেশটির আছে ১৬০টি আণবিক বোমা। সাম্প্রতিক সময়ে পারমাণবিক বোমার সংখ্যা বাড়িয়েছে দেশটি। অনেকে আশঙ্কা করেন, প্রতিবেশীর সঙ্গে দেশটির লড়াই কোন এক সময় পারমাণবিক যুদ্ধে রূপ নিতে পারে।

ভারত : পারমাণবিক বোমার সংখ্যা বাড়াচ্ছে ভারতও। দেশটি প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা চালায় ১৯৭৪ সালে। সিপ্রির তথ্য অনুযায়ী, তাদের কাছে এখন ১৫০টি বোমা রয়েছে। ভারত অবশ্য জানিয়েছে, তারা আগে কোনো দেশকে আঘাত করবে না, আর যেসব দেশের পারমাণবিক বোমা নেই, সেসব দেশের বিরুদ্ধে তারা এ ধরনের বোমা ব্যবহার করবে না কোনোদিন।

ইসরায়েল : ইসরায়েল অবশ্য নিজের দেশের পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কে তেমন কিছু জনসমক্ষে প্রকাশ করে না। যদিও দেশটির নব্বইটি পারমাণবিক ‘ওয়ারহেড’ আছে বলে উল্লেখ করেছে সিপ্রি।

উত্তর কোরিয়া : পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ে গোপনীয়তা অবলম্বন করে উত্তর কোরিয়াও। এখন দেশটির কাছে থাকা বোমার সংখ্যা আনুমানিক ৩০ থেকে ৪০টি। সূত্র: ডয়চে ভেলে