‘মেসিকে কেনার সামর্থ্য লিভারপুলের নেই’

লিভারপুলের কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ জানিয়েছেন, মেসিকে দলে নেওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। বাস্তবতার কারণে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে দলে নেওয়া সম্ভব হবে না বলে মনে করেন জার্মান এই কোচ। কোন ক্লাবে যাচ্ছেন লিওনেল মেসি? ফুটবল বিশ্বে সবচেয়ে আলোচিত প্রশ্ন এখন এটি। বার্সা ছাড়ার ঘোষণা দেওয়ার পর অনেক ক্লাবই মেসির দিকে হাত বাড়াচ্ছেন।

আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে দলে ভোড়ানোর দৌড়ে আছে ম্যানচেস্টার সিটি, প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি), ইন্টার মিলানের মতো জায়ান্ট ক্লাবগুলো। কেউ কেউ ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল লিভারপুলের নামও নিচ্ছেন। তবে ক্লাবটির কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ জানিয়েছেন, এমন কোনো সম্ভাবনা নেই। বাস্তবতার কারণে মেসিকে দলে নেওয়া সম্ভব হবে না বলে মনে করেন জার্মান এই কোচ।

বার্সার সঙ্গে মেসির বর্তমান চুক্তি ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত। আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকরের রিলিজ ক্লজ ৭০ কোটি ইউরো। এ মূল্যে মেসিকে কেনার আগ্রহ লিভারপুলের নেই। যদিও মেসি চাইছেন বিনা ফিতে বার্সা ছাড়তে। অন্যদিকে বার্সার দাবি, বিনা ফিতে যাওয়ার সময় আর নেই। এই গ্রীস্মে যেতে হলে পুরো রিলিজ ক্লজ পরিশোধ করতে হবে মেসিকে।

ক্লাব ফুটবলের নতুন মৌসুমে মাঠে নামছে লিভারপুল। কমিউনিটি শিল্ডে শনিবার আর্সেনালের মুখোমুখি হবে দ্য রেডসরা। ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন ক্লপ। যেখানে উঠে আসে মেসির প্রসঙ্গও। মেসিকে দলে নেওয়ার রেসে লিভারপুল আছে কিনা? লিভারপুল কোচকে এমন প্রশ্ন করা হয়। দীর্ঘ অপেক্ষার ইতি টেনে লিভারপুলকে লিগ শিরোপা জেতানো ক্লপ বলেন, ‘মেসিকে কে না দলে চায়? কিন্তু এতো বড় অঙ্কের অর্থ দেওয়া আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়।

তবে সে দারুণ একজন খেলোয়াড়।’ ইংলিশ, স্প্যানিশ, আর্জেন্টাইন গণ্যমাধমের খবর অনুযায়ী, ম্যানচেস্টার সিটিতে মেসির যাওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। শেষ পর্যন্ত পেপ গার্দিওলার দলে মেসি ঠিকানা গাড়লে লিভারপুলের যে শক্তিশালী প্রতিপক্ষ বাড়বে, সেটা মেনে নিচ্ছেন ক্লপ। তবে এটাকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন লিভারপুল বস।

ক্লপ বলেন, ‘মেসি ম্যান সিটিতে এলে প্রিমিয়ার লিগের জন্য দারুণ ব্যাপার হবে। তবে প্রিমিয়ার লিগের জন্য তেমন বুস্ট দরকার আছে কিনা, নিশ্চিত নই। সে কখনও অন্য কোনো লিগে খেলেনি। এখানকার ফুটবল ভিন্ন। তাই সে যদি আসেই, তাহলে পরিস্থিতি কেমন হয়, আমি দেখতে চাইব।’