কোনো হু’মকিতে মাথা নত করবে না তুরস্ক : এরদোগান

ভূমধ্যসাগরে তুরস্ক কোনো হু’মকিতে মাথা নত করবে না বলে জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান। রোববার তুরস্কের ৯৮তম বিজর দিবস উপলক্ষে আঙ্কারায় এক ভাষণে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এ কথা বলেন। ১৯২২ সালে গ্রিক বাহিনী দামলুপিনারে তুরস্কের হাতে যু’দ্ধে প’রাস্ত হয়।

বিজয় দিবসের বক্তৃতায় পূর্ব ভূমধ্যসাগরে উ’ত্তেজনা নিয়ে এরদোগান বলেন, পূর্ব ভূমধ্যসাগরে বিশেষ করে (ভ’য় দেখানো বা ব্লা’কমেইলের করে) তুরস্ক কোনো হু’মকিতে মাথা নত করবে না। আন্তর্জাতিক আইন ও দ্বিপক্ষীয় চুক্তি থেকে উ’দ্ভূত তার অধিকার র’ক্ষা করতে থাকবে।

ভূমধ্যসাগরে তেল-গ্যাস অনু’সন্ধান নিয়ে তুরস্কের সঙ্গে গ্রিসের উ’ত্তেজনা চ’লছে। এরই মধ্যে আইওনিয়ান সাগরে আঞ্চলিক জলসীমা দ্বিগুণ করার ঘোষণা দিয়েছে গ্রিস। এ নিয়ে আঙ্কার পক্ষ থেকে অ্যাথেন্সকে যু’দ্ধের হু’মকি দেয়া হয়েছে। আইওনিয়ার সাগরের জলসীমা ৬ নটিক্যাল মাইল থেকে বাড়িয়ে ১২ নটিক্যাল মাইল বৃদ্ধি করা হলে এটি যু’দ্ধের কারণ হবে বলে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভাসগ্ললু মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রী ক্রিয়াকোস মিতসোটাকিস বলেন, সরকার আইওনিয়ান সাগরে ইতালির মু’খোমু’খি গ্রিসের আঞ্চলিক জলসীমা দ্বিগুণ করার একটি বিল জমা দেওয়ার পরি’কল্পনা করছে।ভবিষ্যতে অন্যান্য সামুদ্রিক এলাকায় গ্রিস তার আঞ্চলিক জলসীমা বর্ধিত করবে। এমন ঘোষণার পরেই নতুন উ’ত্তেজনা দেখা দিয়েছে বলে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে।

সম্প্রতি পূর্ব ভূমধ্যসাগরে মিসর ও সাইপ্রাস বড় জ্বা’লানি খনির স’ন্ধান পেয়েছে। এর পরই তুরস্ক ওই এলাকায় প্রাকৃতিক সম্পদের খোঁ’জ পাওয়ার জন্য অতিমাত্রায় তৎ’পর হয়ে ওঠে। এ নিয়ে পূর্ব ভূমধ্যসাগরে ব্যাপক উ’ত্তেজনা দেখা দেয়। ইয়েনি শাফাক