দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসবে ভারত

আগামী বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে অন্তত ১৫টি ওয়ানডে ও ৩১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। পরের বছর খেলার কথা রয়েছে আরো ২০টি ওয়ানডে এবং ২৫টি টি-টোয়েন্টি। অর্থাৎ বর্তমান সূচি অনুযায়ী আগামী দুই বছরে ৯১টি ম্যাচ নিশ্চিত। এর বাইরে বর্তমান পরিস্থিতির কারণে স্থগিত হওয়া সিরিজ যোগ হলে ও বিভিন্ন টুর্নামেন্টে পরের রাউন্ডে উত্তীর্ণ হলে ম্যাচ সংখ্যা নিশ্চিতভাবে বাড়বে। টেস্ট ম্যাচ তো থাকছেই।

আগামী দুই বছরের জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) যে সূচি সাজিয়েছে সেই অনুযায়ী ২০২১-২২ সালে বেশ কয়েকটি দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। এর মধ্যে কয়েকটি সিরিজ ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) নির্ধারিত ওয়ানডে সুপার লিগের বাইরে। মূলত বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা করে অতিরিক্ত কিছু সিরিজ নির্ধারণ করেছে বিসিবি। এদিকে ২০২২ সালের ১৬ নভেম্বর ক্রিকেট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে আসবে ভারতীয় দল।

সফরে বিরাট কোহলিরা ২ টেস্ট এবং ৩টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে। সিরিজ শেষে ১৬ই ডিসেম্বর দেশে ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে টিম ইন্ডিয়ার। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন সাংবাদিকদের বলেছেন, আসন্ন সিরিজটি নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সঙ্গে আলোচনা হয়েছে বিসিবির। তিনি বলেন, কিছু বিষয় নিশ্চিত করা হয়েছে। সিরিজটা কাছাকাছি চলে এলে তারিখ পুরোপুরি নিশ্চিত করা হবে।

এখন একটা সময় আমরা ধরে রাখছি যে, ২০২২ সালের নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে সিরিজটা শুরু হবে। আর সিরিজ কাছাকাছি এলে চূড়ান্ত সূচি নিশ্চিত হবে। ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ শেষবার টেস্ট খেলেছিল কলকাতায় গত বছর নভেম্বরে। সেই সফরে প্রথমবারের মতো দিবারাত্রির টেস্টেও লড়েছিল দু’দল। ২০২২ সালে ঠিক থাকলে দীর্ঘ ৭ বছর পর বাংলাদেশের মাটিতে খেলতে দেখা যাবে ভারতীয়দের।