আইপিএল ইতিহাসে সেরা বোলার নির্বাচিত হলেন মালিঙ্গা

আইপিএলে মালিঙ্গার সেরা বোলিং পারফরম্যান্স ২০১১ সালে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের বিরু’দ্ধে। ৩.৪ ওভার বোলিং করে ১৩ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট দখল করেছিলেন।শ্রীলঙ্কার তারকা বোলার লাসিথ মালিঙ্গা আইপিএল ইতিহাসের সেরা বোলার নির্বাচিত হলেন। ডিন জোন্স, ম্যাথু হেডেন, আকাশ চোপড়া, গ্রেম স্মিথ, সাইমন ডুল, ইয়ান বিশপ, টম মুডি সহ মোট ৫০ জনের ক্রিকেট প্যানেলের সদস্যরা মালিঙ্গাকে সেরা বোলারের তকমা দিয়েছেন।

১২২টি আইপিএল ম্যাচে মালিঙ্গার সংগ্রহে ১৭০ উইকেট। ভুবনেশ্বর কুমার, জাসপ্রীত বুমরা, সুনীল নারাইনদের মত বোলারদের পেরিয়ে মালিঙ্গা শ্রেষ্ঠত্বের শিরোপা জিতলেন।স্টার স্পোর্টসের বিশেষজ্ঞ প্যানেলের অন্যতম সদস্য কেভিন পিটারসেন জানিয়েছেন, “আমি মালিঙ্গাকেই বাছব। ওর পরিসংখ্যানের দিকে তাকালেই বিষয়টা স্প’ষ্ট হয়ে যাবে। যেভাবে ও ইয়র্কার ধারাবাহিকভাবে ব্যবহার করে এসেছে তাতে সবাই আলোচনা করতে বাধ্য হয়েছে। মালিঙ্গাই আমার চয়েস।”

পাশাপাশি ইংল্যান্ডের তারকা আরো জানিয়েছেন, “আমি নারিনকেও বাছতে পারতাম। তবে ও কেবলমাত্র সেই পিচেই সফল যেখানে বল টার্ন করে। সেইসঙ্গে ওর বোলিং একশনও প্র’শ্নবিদ্ধ।” আইপিএলে মালিঙ্গার সেরা বোলিং পারফরম্যান্স ২০১১ সালে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের বিরু’দ্ধে। ৩.৪ ওভার বোলিং করে ১৩ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট দখল করেছিলেন। দিল্লি মালিঙ্গার দাপটে সেই ইনিংসে ৮৪ রানে অলআউট হয়ে যায়।

গতবছর ফাইনালেও রোহিত শর্মার মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকেও জিতিয়েছিলেন মালিঙ্গা। প্রথম ৩ ওভারে ৪২ রান খরচ করলেও শেষ ওভারে বোলিং করতে এসে ৯ রান ডিফেন্ড করে যান। শেষ ওভারে শেন ওয়াটসন ও শার্দুল ঠাকুরকে আউট করেন তিনি। চেন্নাইয়ের ইনিংস ১ রান আগেই থেমে যায়। মুম্বই চতুর্থবারের জন্য চ্যাম্পিয়ন হয় আইপিএলে।