শ্রীলংকার বিপক্ষে ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য বাংলাদেশের সম্ভাব্য স্কোয়াড

কয়েকদিনের মধ্যেই শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য প্রাথমিক স্কোয়াড ঘোষণা করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। ধারণা করা হচ্ছে ২০-২২ জনের প্রাথমিক দল নিয়ে শ্রীলংকা যাবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। ২৩ সেপ্টেম্বর শ্রীলংকার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। সেখানে বাংলাদেশ এইচপি এবং বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের মধ্যকার তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

এই ম্যাচের ফলাফলের উপর ভিত্তি করে চূড়ান্ত দল ঘোষণা করা হবে। তবে তার আগে একটি প্রাথমিক দল ঘোষণা করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। সেই স্কোয়াডে থাকছেন কারা। দীর্ঘদিন পর খেলা তাই বাংলাদেশ দলে আসছে না তেমন একটি পরিবর্তন এমনটাই কিছুদিন আগে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

কেমন হতে পারে শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের বাংলাদেশের প্রাথমিক স্কোয়াড? আসুন জেনে নেয়া যাক। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে কয়েকজনের জায়গা একদম নিশ্চিত তাদের মধ্যে অন্যতম অধিনায়ক মমিনুল হক ওপেনার ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম এবং উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান লিটন দাস।

সর্বশেষ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশ দল থেকে বাদ পড়েছিলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আরো একটি সুযোগ পাচ্ছেন তিনি। এছাড়াও ব্যাটসম্যানদের তালিকায় স্কোয়াডে সুযোগ পেতে পারেন মোহাম্মদ মিঠুন, সৌম্য সরকার, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান এবং মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তবে ধারণা করা হচ্ছে ইমরুল কায়েস অথবা ইয়াসির আলী রাব্বি মধ্যে যেকোনো একজনকে দেখা যেতে পারে প্রাথমিক স্কোয়াডে।

তবে এবার ফাস্ট বোলিং এর দিকে একটু বেশি নজর দিচ্ছে বিসিবি। বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেটের ফাস্ট বোলিং ডিপার্টমেন্টে নিয়মিত মুখ আবু জাহেদ চৌধুরী রাহি। টেস্ট ক্রিকেটে বর্তমান সময়ে তিনি একমাত্র ধারাবাহিক ফাস্ট বোলার। তাই তার দলে থাকা একপ্রকার নিশ্চিত।

টেস্ট ক্রিকেটের জন্য বাংলাদেশের স্পেশালিস্ট বোলার হিসেবে শ্রীলঙ্কা সিরিজের যাচ্ছেন এবাদত হোসেন। মূলত গতির কারণ এই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে আবারও সুযোগ পাচ্ছেন তিনি। তবে শ্রীলঙ্কা সিরিজের সবচেয়ে বড় চমক হতে পারে হাসান মাহমুদ। ঘরোয়া ক্রিকেট লিগের দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করা এই ফাস্ট বোলারকে দেখা যেতে পারে শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রাথমিক স্কোয়াডে।

তবে এবার কপাল খুলছে তাসকিন আহমেদ এবং মুস্তাফিজুর রহমানের। সর্বশেষ দুই বছর আগে বাংলাদেশ টেস্ট দলের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন তাসকিন আহমেদ। তালিকায় শেষ ফাস্ট বোলার মোস্তাফিজুর রহমান। মূলত শ্রীলংকার উইকেট বিবেচনা করেই মোস্তাফিজুর রহমানকে দলে রাখা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বরাবর টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের প্রাণ বলা হয় স্পিন বোলিংকে। ইতিমধ্যেই টেস্টে বর্তমানে বোলিংয়ে আস্থার প্রতিদান দিচ্ছেন ইমরুল কায়েস এবং মেহেদী হাসান মিরাজ। এছাড়াও সম্প্রতি দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন আরেক স্পিনার নাঈম হাসান। তাই এই তিনজনের স্কোয়াডে থাকা অনেকটাই নিশ্চিত।

তবে বাংলাদেশ দলের জন্য আরও একটি খুশির খবর রয়েছে। শ্রীলংকার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ থেকেই বাংলাদেশ দলে যোগ হতে পারেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তাই সাকিব ফিরলে আরো অনেক শক্তিশালী হবে বাংলাদেশ।