ব্যবসা নয়, সেবার মানসিকতা নিয়ে কাজ করুন : ঠিকাদারদের উদ্দেশ্যে সুজন

চট্টগ্রামের দুঃখ পোর্ট কানেকটিং রোডের উন্নয়নকাজ এ কয়েকদিনেই দৃশ্যমান। সঠিক তদারকি আর জনস্বার্থকে গুরুত্ব দিয়ে এ কাজের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করছি। আমাদের অর্থনীতির লাইফ লাইন খ্যাত এ সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে অযত্ন অব’হেলায় পড়ে ছিল। আমি দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই অগ্রাধিকার প্রকল্পে এ সড়ককে অন্তর্ভুক্ত করেছি। প্রায়ই আমি এ সড়ক পরিদর্শন করে ঠিকাদারদের প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা আর তাগাদা প্রদান করছি।

আমাদের অনেক সময় করোনা এবং বর্ষায় নষ্ট হয়ে গিয়েছে। তাই একমূহুর্তও সময় ন’ষ্ট করার কোনো অবকাশ নেই। এই শীত মৌসুমেই এ সড়ককে যান ও জন চলাচলের উপযোগী করে গড়ে তোলার কোন বিকল্প নেই। তিনি গতকাল শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সাগরিকা থেকে ওয়াপদা মোড় পর্যন্ত পিসি রোডের কাজ পরিদর্শনকালে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি স্থানীয় জনসাধারণের সাথে কুশল বিনিময় করে আরো বলেন আলোচনা সমালোচনা থাকবে। তবে গঠনমূলক সমালোচনায় অনেক কিছুর সমাধান আসে। তাই তিনি ধৈর্য্য ও সহনশীল মনোভাবে উন্নয়ন কাজে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। পরিদর্শনকালে প্রশাসক পিসি রোডের কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারদের কাজে গতি ত্বরান্বিত করার নির্দেশনা দিয়ে বলেন আমি উন্নয়নের প্রসব বেদনায় ভুগছি। এ কাজে আপনার গাফিলতি আমাকে প্রশ্নচিহ্ন করছে। তাই শুধুমাত্র ব্যবসায়িক মানসি’কতা পরিহার করে দায়ি’ত্বজ্ঞান ও সেবার মানসিকতায় কাজ করুন।

অন্যথায় বিবেকের কাঠগড়ায় আপনাদের দাড়াতে হবে। প্রশাসক আগামী কিছুদিনের মধ্যে পিসি রোডের দৃশ্যমান উন্নয়ন লক্ষনীয় হবে বলে জানান। পরিদর্শনকালে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি এবং ঠিকাদারগণ প্রশাসকের সাথে ছিলেন।-পূর্বকোণ