শুয়েই দিন-রাত কাটে তাসমিমার, সহায়তা চায় পরিবার

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৫ মাসের শিশু তাসমিমা ভুগ’ছে হাইড্রো’কেফালাসে। অর্থাভাবে বিরল এই রোগের চিকিৎসা করাতে সহায়তা চায় তার পরিবার। চি’কিৎসকরা বলছেন, এ রোগে পুরোপুরি সুস্থ হওয়ার হার খুবই কম, তবে ধারাবাহিক চিকিৎসায় রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার মোটরসাইকেল গ্যারেজের মেকানিক তোজাম্মেল হকের ১৫ মাস বয়সী শিশু তাসমিমা। জন্মের পর থেকেই সে বিরল হাইড্রো’কেফালাস রোগে আক্রা’ন্ত। এ রোগে আ’ক্রান্ত শিশুর মস্তিস্কে এক ধরনের তরল জমতে থাকে, ফলে মাথার আকৃতি ক্রমেই বড় হয়ে যায়। এছাড়া, চোখের পাতা নিচের দিকে নুয়ে পড়া, মানসিক প্রতিবন্ধ’কতা ও শারী’রিক বৃদ্ধিতে ঘাটতিসহ নানা উপসর্গ দেখা যায়।

এ রোগের প্রভাবে অস্বাভাবিক বড় মাথা নিয়ে শুয়েই দিন-রাত কাটে তাসমিমার। তার বাবা-মা জানান, জ’ন্মের পর অর্থের অভাবে মেয়ের এই রোগের চি’কিৎসা করাতে পারছেন না। তাসমিমার চিকিৎসার জন্য সহায়তার হাত বাড়াতে বিত্তবানদের প্রতি আহ্বান স্থানীয়দের।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের সিভিল সার্জন জাহিদ নজরুল চৌধুরী জানান, ধারাবাহিক চিকিৎসায় রোগটিকে নি’য়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। তবে, পুরোপুরি সুস্থ হওয়ার সম্ভাবনাও ক্ষীণ। সমাজসেবা ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে বিনা খরচে তাসমিমার চি’কিৎসার ব্যবস্থা করতে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন সিভিল সার্জন।-ইন্ডিপেন্ডেন্ট নিউজ