চরিত্র এক মহামূল্যবান সম্পদ

ঈমানের পরে চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যকেই ইসলামে সর্বাপেক্ষা গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। এমনকি চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যকে ঈমানের মাপকাঠী বলে উল্লেখ করা হয়েছে- যার চরিত্র দুর্বল, সে খাটি ঈমানদার নহে। আরবী আখলাক শব্দটি খুলুকুন শব্দের বহুবচন। এর অর্থ স্বভাব চরিত্র, সৌজন্যমূলক ব্যবহার। সুন্দর স্বভাব ও ভাল চরিত্রকে আখলাক বলে। মানুষ সামাজিক জীব তাই একজনকে অন্যজনের সাথে মিলেমিশে বসবাস করতে হয়।

মিলেমিশে ও সুন্দরভাবে চলাকে আখলাক বলে। আখলাক বলতে মানুষে উত্তম ও সুন্দর চরিত্রকে বোঝায়। চরি’ত্র এক মহামূল্যবান, অতুলনীয় সম্পদ ও এক অমূল্য রত্ন। এই পৃথিবীর কোন কিছুর সঙ্গে এর তুলনা হয়না। সমগ্র বিশ্বের বিনিময়েও তা কেনা যায় না। বলা হয় বিদ্যা অমূল্য ধন, এই ধন কেউ না নিতে পারে কেড়ে। এ বিদ্যাও চরি’ত্রের তুলনায় নগণ্য। বিদ্যার মূল্য ততক্ষণ, যতক্ষণ তা চরিত্র গঠনে ও তা রক্ষায় সহায়ক হয়। এক মনীষী বলেছেন চরিত্র’হীন বিদ্বানের চাইতে চরিত্র’বান মুর্খও ভাল।

ব্যক্তির নৈতি’কতা ও চরিত্রকে সুন্দর ও মার্জিত করার বিষয়টি ইসলামে কত যে গুরুত্বপূর্ণ এবং কত যে ফজীলতের তা মহানবী হযরত মুহাম্মাদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর নিম্নোক্ত হাদীস থেকে অনুমান করা যায়। হযরত মুহাম্মাদ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-ইরশাদ করেন- তোমাদের মধ্যে তারাই উত্তম মানুষ বলে বিবেচিত, যাদের চরিত্র উত্তম। অপর এক হাদিসে ইরশাদ হয়েছে কেয়ামতের দিন ঐ ব্যক্তিই আমার কাছে সবচেয়ে প্রিয় হবে যার নৈতি’কতা ও চরিত্র সবচেয়ে ভাল।

উত্তম চরিত্রের অর্থ- অন্যা’য়কে সমর্থন করা নয়, শুধু মানুষের প্রশংসা লাভের সাধনাও নয়। কারণ যে সবাইকে তুষ্ট করতে চায় সে কাউকে সন্তুষ্ট করতে পারে না। চরিত্র যার উত্তম সে সর্বদাই নীতিবান, মি’থ্যাকে সে আন্তরিকভাবে ঘৃ’ণা করে, প্রাণ গেলেও সে মানুষকে তু’ষ্ট করবার জন্য অন্যায় ও মি’থ্যাকে সমর্থন করে না। সে মি’থ্যাকে সাক্ষ্য দেয় না। অন্তরে পাপ, মুখে তার মধু নয়। সে বিনয়ী, ভদ্র এবং সহিষ্ণু। সে মানুষের দাবিকে ন’ষ্ট করে না। সে কখনও অভদ্রের মত কথা বলে না। মানুষকে ইতর ছোটলোক বলে উপহাস করে চলা তার স্বভাব নয়।

আরও সুন্দরভাবে বলতে গেলে মানুষের মধ্যে পারস্পরিক সু-সম্পর্ক গড়ে উঠা এবং সৌহার্দ্য বজায় রাখবার জন্য যে সমস্ত সদাচার এবং সৌজন্যমূলক ব্যবহার করা হয় তাই উত্তম চরিত্র। উত্তম চরিত্র মানুষকে বাঁচিয়ে রাখতে পারে দীর্ঘ সময়। কারণ মানুষ মৃ’তু্যর পরও অনেক সময় মানুষের মনে বাঁচে তার চরি’ত্র দ্বারা। মহান আল্লাহ পাক আমাদের সকলকে উত্তম চরিত্র বান মানুষ হওয়ার তৌফিক দান করুন আল্লাহুম্মা আমিন।

সাবেক: হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকী, ইমাম ও খতিব কদমতলী মাজার জামে মসজিদ সিলেট।