অবসর ভেঙে ক্রিকেটে ফিরছেন যুবরাজ?

ক্যা’নসা’রের সঙ্গে লড়াই জয়ের পর ২০১৯ সালে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর গ্রহণ করেছিলেন ভারতীয় অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং। তবে গত কয়েক মাস ধরে পাঞ্জাবের তরুণ ক্রিকেটার শুভমন গিল, অভিষেক শর্মা, প্রভশিমরান, আনমলপ্রীত সিংদের সঙ্গে নেটে গিয়ে মনে হচ্ছে, ব্যাটে বল খুব ভালো লাগছে এবং এটাই তাকে ক্রিকেটে ফিরতে উৎসাহিত করছে বলে জানিয়েছে ক্রিকেট ওয়েবসাইট ক্রিকবাজ।

তরুণদের শেখানো-পড়ানোর পাশপাশি যুবরাজ নিজেও অনুশীলন করেছেন। পরবর্তীতে পাঞ্জাবের ওই ক্যাম্পে ব্যাট হাতেও নেমে পড়েন তিনি। অনুশীলন ম্যাচগুলোতে পান রানের দেখা। তখন পাঞ্জাব ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি পুনিত বালি তাকে অবসর ভেঙে ফেরার প্রস্তাব দেন। শুরুতে দ্বি’ধায় থাকলেও কয়েক সপ্তাহ ধরে ভেবেচিন্তে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন তিনি। যুবরাজ সবশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে।

এরপর জাতীয় দলে আর জায়গা হয়নি তার। এরপর ২০১৯ সালে বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে অবসরের সিদ্ধান্ত নেন তিনি। ৩৮ বছর বয়সী যুবরাজ সিংকে আবারও দেখা যেতে পারে ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে। যুবরাজ অবসর ভেঙে বেরিয়ে আসার জন্য এরইমধ্যে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী ও সচিব জয় শাহকে ই-মেইল করেছেন। তিনি নিশ্চিত করেছেন যদি পাঞ্জাবের হয়ে আবার খেলার সুযোগ পান, তাহলে দেশের বাইরে খেলার আর চেষ্টা করবেন না।

‘বিষয়টি এখন যেমন মনে হচ্ছে, যদি অনুমতি পাই আমি শুধু টি-২০ ক্রিকেট খেলতে পারি। কিন্তু কে বলতে পারে কী হবে, দেখা যাক!’-বলেছেন যুবরাজ। তবে পাঞ্জাবকে একবার অন্তত শিরোপা জেতানোর খুব ইচ্ছে জেগেছে পাঞ্জাব-পুত্রের। এর আগে ভারতীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে যুবরাজ সিংয়ের মা শবনম সিং জানিয়েছিলেন, ‘দিন দুয়েকের মধ্যে সে দুবাই থেকে ফিরলে তার সঙ্গে এসব নিয়ে অনেক কথা হবে। আপনারা যা শুনেছেন সব সত্যি।’ অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশেও প্রস্তাব আছে যুবরাজের।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তার জন্যে দল খুঁজছে বলে জানা গেছে। কিন্তু বিসিসিআইয়ের আই’ন অনুযায়ী শুধু অবসর নেওয়া খেলোয়াড়েরাই বিদেশের লিগে খেলতে পারে। এদিকে তার বাবা যোগরাজ সিং বলেছেন, ‘সে শুধু দিতে জানে। এই কাঠফাটা রোদের মধ্যে সে শুভমন, প্রভ ও অভিষেককে প্রতিদিন পাঁচ ঘণ্টা করে অনুশীলন করাচ্ছে। মুল্লানপুরের নতুন পাঞ্জাব ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন গ্রাউন্ডে সে যেভাবে ছক্কা মারছে, তাতে সবাই চাইছে ও ফিরে আসুক।

সে যদি পাঞ্জাবের হয়ে অন্তত তিন বছর খেলতে পারে, অন্তত দুজন বিশ্বমানের খেলোয়াড় ভারতকে দিয়ে যাবে। সুতরাং তার খেলাই উচিত।’ যুবরাজ সিং ভারতের হয়ে ৩০৪টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ৮৭০১ রান করেছেন, বাঁহাতি স্পিনে নিয়েছেন ১১১ উইকেট। খেলেছেন ৪০ টেস্ট ও ৫৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচও।-সারাবাংলা।