১২ লক্ষ থেকে বেতন এখন ১৭ কোটি টাকা

আগামী ১৯ শে সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে চলেছে ১৩ তম আইপিএল। প্রথম ম‍্যাচে মুখোমুখি চেন্নাই সুপার কিংস এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।ইতিমধ্যে আর্থিক স‌ংকটের মুখোমুখি হয়েছে গোটা বিশ্ব।যদিও তা প্রভাব ফেলবে না ক্রিকেটারদের আর্থিক চুক্তিতে ।তারা তাদের চুক্তি অনুযায়ী পারিশ্রমিক পাবেন। এতো বছরের আইপিএলের ইতিহাসে বেশ কিছু ভারতীয় ক্রিকেটার আছে যাদের স‍্যালারির পরিমাণ বছরের পর বছর ধরে বেড়েছে পাহাড় প্রমাণ। আজ এমনই চার ভারতীয় ক্রিকেটারের কথা বলবো এখানে।

বিরাট কোহলি (রয়‍্যাল চ‍্যালেন্জার্স ব‍্যাঙ্গালোর)-: ২০০৮ সালে সদ‍্য অনূর্ধ – ১৯ ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক’কে দলে নিয়েছিলো ব‍্যাঙ্গালোর ক‍র্তৃপক্ষ ১২ লক্ষ টাকার বিনিময়ে।যদিও প্রথম মরসুমে এই জনপ্রিয় টি টোয়েন্টি ক্রিকেট লিগে নজর কাড়তে ব‍্যার্থ হন ভারতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমান অধিনায়ক। তবুও তার উপর থেকে আস্থা হারায়নি আরসিবি কর্তৃপক্ষ।

২০০৮ থেকে ২০১০ সাল অবধি একই অঙ্কের পারিশ্রমিক পান বিরাট তবে অবস্থার পরিবর্তন আশ্চর্যজনক ভাবে বদল হয় ২০১১ সালে।সেইবছর ৮.২৭ কোটি টাকায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন তিনি।২০১৪ সালে আরসিবি’র অধিনায়ক নির্বাচিত হন বিরাট।এক ধাক্কায় তার পারিশ্রমিক ৫১ % বেড়ে গিয়ে দাড়ায় ১২.৫ কোটিতে।২০১৮ সালে ফের আরেকবার পারিশ্রমিক বৃদ্ধি পায় তার।অর্থের পরিমাণ ১৭ কোটি‌ !

কে এল রাহুল ( কিংস ইলেভেন পান্জাব )-: বেঙ্গালুরুর ঘরের ছেলে তার আইপিএল কেরিয়ার শুরু করেছিলো ঘরের দলের হয়ে‌।২০১৩ সালে তাকে দশ লক্ষ টাকার বিনিময়ে দলে নেয় আরসিবি।পরবর্তী সময়ে নিজের দুরন্ত প্রদর্শনের মধ্যে দিয়ে এই তারকা ভারতীয় উইকেট কিপার ব‍্যাটসম‍্যান তার দাম বাড়িয়ে নেন।২০১৪ সালে তিনি সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ দলে যোগ দেন ১ কোটি টাকার বিনিময়ে।পরবর্তী সময়ে একই পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে ফের আরসিবি’তে যোগ দিলেও ২০১৮ সালে রেকর্ড সৃষ্টিকারী ১১ কোটি টাকার চুক্তি করে তার সাথে কিংস ইলেভেন পান্জাব।

হার্দিক পান্ডিয়া ( মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স )-: নিজের দুরন্ত ক্রিকেট প্রতিভার পরিচয় দেওয়ার মধ্যে থেকে শূন্য থেকে শুরু করে শীর্ষে পৌছেঁছেন তারকা ভারতীয় অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া।২০১৫ সালে এক কোটি টাকার বিনিময়ে তাকে দলে নেয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স কর্তৃপক্ষ।২০১৮ সালে তা বেড়ে দাড়ায় এগারো গুন বেশী।১১ কোটি টাকার চুক্তি হয় তার মুম্বাই দলের সাথে।২০১৯ সালের অক্টোবর মাস থেকে ক্রিকেট থেকে খানিকটা দুরে রয়েছেন এই তারকা অলরাউন্ডার চোটের দরুণ।ভক্তরা এখন অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে তাকে দেখার জন্য আগামী ১৯ শে সেপ্টেম্বর চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে প্রথম ম‍্যাচে।

ঋষভ পন্থ ( দিল্লি ক‍্যাপিটালস )-: ২০১৬ সালে তৎকালীন দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের হয়ে আইপিএলে অভিষেক হয় ঋষভ পন্থের।অনুর্ধ – ১৯ এই প্রতিভাবান ক্রিকেটারকে সেই সময় ১.৯ কোটি টাকার বিনিময়ে দলে নেয় দিল্লি।২০১৬,২০১৭ সালের আইপিএল মরসুমে দুরন্ত সব পারফরম্যান্স দিয়েছিলেন তিনি।খেলেছিলেন লম্বা ইনিংস।যার জেরে ২০১৮ সালে দলের তরফে তাকে আট কোটি টাকার চুক্তি প্রস্তাব দেওয়া হয়।পরবর্তী সময়ে ২০২০ সালে সেটির পরিমাণ গিয়ে দাড়ায় ১৫ কোটিতে। –স্পোর্টজউইকি