লাদাখের পর এবার পশ্চিম ভুটানেও গোলমাল শুরু করে দিল চিনা সেনা

লাদাখের মতো একই পদ্ধতিতে গত ১৩ অগাস্ট তোর্সা নালা পার করে ভুটান সীমানায় ঢোকে পিএলএ। লাদাখের পর পশ্চিম ও মধ্য ভুটানের সীমান্ত বরাবর গোলমাল শুরু করেছে চিনা সেনা। ভূ-রাজ’নৈতিক কারণ ভারতের পক্ষে ভুটান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জায়গা। তাই এনিয়ে যথেষ্ঠ মাথাব্য’থার কারণ রয়েছে ভারতেরও।

চিন দাবি করে আসছে ভুটানের পশ্চিম প্রান্তের ৩১৮ বর্গ কিলোমিটার ও মধ্য ভুটানের সীমান্ত বরাবর ৪৯৫ বর্গ কিলোমিটার এলাকা তাদের। চিনা সেনা ওইসব জায়গায় সেনা চলাচলের রাস্তা তৈরি করে চলেছে। ২০১৭ সালে ডোকা লা-য় ভারতের সঙ্গে সংঘা’তের পরও চিন ভুটানের এলাকায় সেনা চলাচল বন্ধ রাখেনি। এমনকি ডোকা লা-র বিবাদের পর পশ্চিম ভুটানের ৫টি জায়গায় অন্তত ৪০ কিলোমিটার ঢুকে পড়েছে চিনা সেনা। সেখানে ধীরে ধীরে হেলি প্যাড, ভারী যান চলাচলের রাস্তা তৈরি করে চলেছে পিএলএ।

লাদাখের মতো একই পদ্ধতিতে গত ১৩ অগাস্ট তোর্সা নালা পার করে ভুটান সীমানায় ঢোকে পিএলএ। রাজা-রানী লেকের আশপাশের এলাকা থেকে পশুপালকদের সেখান থেকে সরে যেতে বলে। সংবাদমাধ্যমে খবর, উত্তর ডোকা লা-য় সার্ভিল্যান্স ক্যামেরা ও অন্যান্য অত্যাধুনিক সরঞ্জাম বসিয়ে নজরদারি শুরু করে দিয়েছে চিন।-জিনিউজ।