তিনজন বিদেশী প্রথম আইপিএল থেকেই একই দলের হয়ে খেলছেন

আইপিএলে খেলোয়াড়রা বেশকিছু দলের হয়ে খেলার সুযোগ পান। আসলে প্রত্যেক বছর ফ্রেঞ্চাইজিগুলির কাছে খেলোয়াড়দের রিলিজ করার সুযোগ থাকে, এই কারণে খেলোয়াড়রা এক দল থেকে অন্য দলে চলে যান। অনেক কম খেলোয়াড় এমন রয়েছেন যারা নিজেদের প্রথম মরশুম থেকে একই আইপিএল দলের হয়ে খেলছেন। আজ আমরা আপনাদের এই বিশেষ প্রতিবেদনে ৩জন এমনই বিদেশী খেলোয়াড়ের ব্যাপারে জানাব, যারা নিজেদের প্রথম মরশুম থেকে একই আইপিএল দলের হয়ে খেলছেন।

কায়রন পোলার্ড: কায়রন পোলার্ড আইপিএলে নিজের প্রথম মরশুম থেকেই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলছেন। তিনি আইপিএল ২০০৯এ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে যোগ দিয়েছিলেন আর এখনো পর্যন্ত এই দল থেকে আলাদা হননি। তিনি নিজের খেলা আইপিএলের ১৪৮টি ম্যাচ ২৮.৭ এর দুর্দান্ত গড়ে এবং ১৪৬০৭৮ স্ট্রাইকরেটে মোট ২৭৫৫ রান করেছেন। সেই সঙ্গে নিজের বোলিংয়েও তিনি দলের হয়ে ৮.৮৬ ইকোনমি রেটে ৫৬টি উইকেট নিয়েছেন।

যদি আইপিএল ২০২০ হয় তো তিনি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে আবারো চ্যাম্পিয়ন করতে চাইবেন। জানিয়ে দিই যে কায়রন পোলার্ডের টি-২০ ক্রিকেটের যথেষ্ট অভিজ্ঞতা রয়েছে। তিনি বিশ্বজুড়ে টি-২০ লীগ খেলেন আর এখনো পর্যন্ত মোট ৫০টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন।

সুনীল নারায়ন: সুনীল নারায়ন নিজের প্রথম আইপিএল ২০১২য় খেলেছিলেন, তবে থেকেই তিনি কলকাতা নাইট রাইডার্স দলে থেকেছেন। তিনি এখনো পর্যন্ত ৮টি আইপিএল খেলেছেন আর সবকটিই তিনি কেকেআর দলের হয়ে খেলেছেন। আইপিএল ২০১২ আর আইপিএল ২০১৮য় তিনি ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্টের খেতাবও জিতেছেন। নিজের খেলা ১১০টি আইপিএল ম্যাচে তিনি কেকেআরের হয়ে ১২২টি উইকেট নিয়েছেন।

এর মধ্যে তার বোলিংয়ের ইকোনমি রেট থেকেছেন ৬.৬৭। গত ৩ বছর ধরে তিনি ব্যাটিংয়েও দলের হয়ে যোগদান দিচ্ছেন। তিনি আইপিএলে ১৭.৫২ গড়ে ৭৭১ রান করেছেন। এর মধ্যে তার স্ট্রাইকরেট থেকেছে ১৬৮.৩৪। আর তিনি মোট ৩টি হাফসেঞ্চুরিও নিজের দলের হয়ে করেছেন।

লাসিথ মালিঙ্গা: লাসিথ মালিঙ্গা আইপিএলে ১২২টি ম্যাচ খেলেছেন যার মধ্যে তিনি ১৯.৮০ গড়ে আর ৭.১৪ ইকোনমি রেটে মোট ১৭০টি উইকেট হাসিল করেছেন। লাসিথ মালিঙ্গা আইপিএলে ১২৯টি ওয়াইড বল আর ১৮ বার নো বল করেছেন। তিনি এখনো পর্যন্ত স্রেফ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দলের হয়েই খেলেছেন।

তিনি সবসময়ই আইপিএলে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন। এখন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়েই তিনি নতুন বলে বোলিং করেন আর সেই সঙ্গে ডেথ ওভারেও বোলিংয়ের দায়িত্ব সামলান।