হতাশা ঝেড়ে জোড়া গোল মেসির, বুঝিয়ে দিলেন দায়িত্ববোধ এখনও আছে

ক্লাব ছাড়তে চেয়েছিলেন লিওনেল মেসি। বার্সেলোনা কর্তারা একপ্রকার জোর করেই আ’টকে রাখেন আর্জেন্তাইন তারকাকে। নিজের ইচ্ছার বিরু’দ্ধে বার্সায় পড়ে থাকতে হলেও দায়বদ্ধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলার জায়গা দিলেন না মেসি। নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যানের জমানায় দ্বিতীয় প্রীতি ম্যাচে মাঠে নেমেই জোড়া গোল করেন এলএম টেন। প্রত্যাশিতভাবেই বার্সেলোনা ৩-১ গোলে পরাজিত করে জিরোনাকে।

ম্যাচের প্রথমার্ধে ফিলিপ কুটিনহোর গোলে (২১ মিনিট) ১-০ এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। দ্বিতীয়ার্ধে ৪৫ ও ৫১ মিনিটে দু’টি গোল করেন মেসি। ৪৬ মিনিটে জিরোনার হয়ে ব্যবধান কমান স্যামুয়েল। কোম্যান দায়িত্ব নিয়েই জানিয়ে দেন সুয়ারেজ, ভিদাল, রাকিটিচরা তাঁর পরিকল্পনায় নেই। তাঁদের নতুন ক্লাব খুঁজে নিতে বলা হয় বার্সার তরফে। রাকিটিচ সেভিয়ায় ফিরে গেলেও সুয়ারেজ ও ভিদাল এখনও বার্সাতেই রয়েছেন। যদিও কোম্যান ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিলেন, কাতালান ক্লাবে পড়ে থাকলে, তাঁদের গোটা মরশুম যন্ত্র’ণাময় হতে চলেছে।

কেননা, দ্বিতীয় প্রীতি ম্যাচেও দুই অভিজ্ঞ তারকাকে দলে রাখলেন না ডাচ কোচ।সুয়ারেজের প্রসঙ্গে ম্যাচের শেষ কোম্যান বলেন, ‘যদি সুয়ারেজ শেষমেশ বার্সেলোনায় থেকে যায়, তবে দলের বাকি ফুটবলারদের মতোই ওর সঙ্গে ব্যবহার করা হবে। আজ সকালেই ওর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। আমরা এখনও জানি না, ও থাকছে নাকি ক্লাব ছাড়তে চলেছে।’