কুমিল্লায় তরুণীকে বাসে গণধ’র্ষণ, চালক-হেলপারের রিমা’ন্ড আবেদন

প্রতীকী ছবি

কুমিল্লায় তিশা প্লাস নামে যাত্রীবাহী বাসে ঢাকা থেকে কুমিল্লা নগরীতে ফেরা এক তরুণী যাত্রীকে আট’কে রেখে গণধ’র্ষণের ঘটনায় গ্রে’ফতারকৃত চালক-হেলপারের ৭ দিনের রিমা’ন্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) মা’মলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর দক্ষিণ মডেল থা’নার পরিদর্শক (তদন্ত) কমল কৃষ্ণ ধর কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আ’দালতে এ আবেদন করেন।

এদিকে মা’মলায় অভিযুক্ত অপর ধ’র্ষক বাসের সুপারভাইজারকে গ্রে’ফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ ও মা’মলার বিবরণে জানা যায়, কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সাহেবাবাদ গ্রামের বাসিন্দা ওই তরুণী (১৬) কিছু দিন আগে ঢাকার আবদুল্লাহপুরস্থ তার জেঠাতো বোনের বাসায় যায়।

গত সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বাড়ি ফেরার উদ্দেশে বিকেলে জেঠাতো বোনের বাসা থেকে বের হয় এবং আবদুল্লাহপুর থেকে লোকাল বাসযোগে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে পৌঁছে। ওইদিন রাত আনুমানিক সাড়ে ১১টার সময় সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল হতে তিশা প্লাস পরিবহনের একটি বাসযোগে কুমিল্লা শহরের শাসনগাছার উদ্দেশে রওনা করে।

পথিমধ্যে ওই তরুণী বাসের চালক, হেলপার ও সুপারভাইজারকে শাসনগাছা বাস স্টেশনে তাকে নামিয়ে দেয়ার জন্য অনুরোধ জানালে তারা তাকে নামিয়ে দেবে এবং এ বিষয়ে টেনশন করতে নিষে’ধ করে। কিন্তু ওই বাসের চালকসহ তারা তরুণীকে নগরীর শাসনগাছা নামিয়ে দেয়ার কথা থাকলেও সেখানে তাকে না নামিয়ে অন্যান্য যাত্রীদের নামিয়ে দেয়ার পর কৌশলে বাসটি জেলা সদরের অদূরে সদর দক্ষিণ থানাধীন পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডের আল-শাকিল হোটেলের সামনে নিয়ে যায়।

সেখানে মঙ্গলবার ভোর আনুমানিক ৪টার দিকে বাসের দরজা-জানালা বন্ধ করে দিয়ে ওই তরুণীকে নানা ভ’য়ভীতি দেখিয়ে বাসের হেলপার বাবু শেখ (২২), চালক আরিফ হোসেন সোহেল (২৬) ও সুপারভাইজার আলম (৩২) গণধ’র্ষণ করে।

পরে বাসের চালক আরিফ হোসেন সোহেল বাস থেকে নেমে চলে গেলে বাসের হেলপার বাবু শেখ ও সুপারভাইজার আলম তরুণীকে বাস থেকে নামিয়ে পদুয়ার বাজার এলাকায় বাস হেলপার বাবু শেখের বসতঘরে নিয়ে পুনরায় ধ’র্ষণ করে সকাল ৬টার দিকে অসুস্থ অবস্থায় ঘর থেকে বের করে দিয়ে চলে যেতে বলে।

পরে ওই তরুণী মোবাইল ফোনে বিষয়টি তার মাকে জানালে গত মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বেলা ২টার দিকে তার মা পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড এলাকায় পৌঁছে ঘটনার বিস্তারিত জানেন এবং ধ’র্ষকদের নাম-ঠিকানা সংগ্রহ করেন। এ বিষয়ে ধ’র্ষিতার মা বাদী হয়ে ওইদিন ৩ ধ’র্ষকের বিরু’দ্ধে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থা’নায় গণধর্ষ’ণের অপ’রাধে মা’মলা দায়ের করেন।

মা’মলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর দক্ষিণ মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কমল কৃষ্ণ ধর জানান, এ ঘটনায় বাস চালক বাবু শেখ ও হেলপার আরিফ হোসেন সোহেলকে গ্রে’ফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার আ’দালতে উভয়ের ৭ দিনের রিমা’ন্ডের আবেদন করা হয়েছে। এছাড়া মামলার ভিকটিম ওই তরুণীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে এবং সে আদা’লতে ঘটনার বিবরণ জানিয়ে জবানবন্দি দিয়েছে। মাম’লার অপর আ’সামি আলমকে গ্রে’ফতারের চেষ্টা চলছে।

সূত্র: সময় নিউজ।