ম্যাচ হেরে যাকে দায়ী করলেন রোহিত

প্রথম ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসের কাছে পাঁচ উইকেটে হেরে আইপিএল ২০২০ শুরু করল গতবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ ম্যাচ হারের পর মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মার বক্তব্য, আমিরশাহীর পিচ ও পরিবেশের মানিয়ে তাদের আরও কিছুদিন সময় লাগবে৷ হারের কারণ হিসেবে এদিন তাঁদের ব্যাটিংকে দায়ী করার পাশাপাশি চেন্নাই

সুপার কিংসের বোলিংয়ের প্রশংসা করেন রোহিত৷ আইপিএলের সর্বাধিক সফল অধিনায়ক গতকাল শনিবার হারের পর বলেন, আইপিএলের মতো সিরিজে জয় দিয়ে শুরু করা গুরুত্বপূর্ণ৷ তবে দল আশা করে ভুল থেকে শিক্ষা নেবে এবং আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসবে।

গতবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ২০২০ আইপিএলের প্রথম ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসের কাছে পাঁচ উইকেটে হারে৷ এদিন আবুধাবির দর্শকশূন্য শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে প্রথম ব্যাটিং করে ৯ উইকেটে ১৬২ রান তুলেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ রান তাড়া করতে নেমে চার বল বাকি থাকতেই পাঁচ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ জিতে নেয় সুপার কিংস৷

ম্যাচে দর্শক না-থাকলেও বিসিসিআই কৃত্রিমভাবে প্রাক-রেকর্ডেড ফ্যান মঞ্চের ব্যবস্থা করেছিলেন৷ যার প্রশংসা করে রোহিত বলেন, আশা করা যায় শীঘ্রই দর্শকরা স্টেডিয়ামে ফিরে আসবে। তবে এদিন যে তারা ফ্যানেদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি তা স্বীকার করেন নেন মুম্বই অধিনায়ক৷

রোহিত বলেন, ‘ডু প্লেসিস এবং রায়ডুর মতো তাদের ব্যাটসম্যানরা খেলতে পারেনি। এটি আমাদের ব্যর্থতা৷ তবে সিএসকে বোলারদের কৃতিত্ব, তারা আমাদের বড় রান করতে দেয়নি। এখান থেকে আমাদের শিখতে হবে৷ এই ম্যাচ থেকে আমাদের শিখার জন্য কয়েকটি জিনিস, আমরা ভুল করেছি৷ আশা করি আমরা সেগুলি সংশোধন করে আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসতে পারব৷’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা পিচের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে পেয়েছি। পিচ পরের দিকে ভালো হয়েছে৷ এটি এমন নয় যে, আমরা বড় মাঠে খেলিনি। আমরা এই ফাঁকগুলি পেয়েছি৷ আমি নিশ্চিত, আমরা আমরা সিঙ্গলস এবং ডাবল রান নিতে পারতাম৷ কেবল বড় শট মারতে গিয়ে উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে আসার দরকার হয় না৷

রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডি’কক দ্রুত আউট হওয়ার পর ২০ বলে ৩৩ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে বিদায় নেন সূর্যকুমার যাদব৷ প্রত্যাবর্তন হিসেব সৌরভ তিওয়ারি রক্ষণশীল ব্যাটিং চ্যাম্পিয়নদের ১০০ এর কাছে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি ভালো পার্টনারশিপের সূচনা করেছিলেন। মুম্বই যখন তাদের তিন-অঙ্কের স্কোরের চেয়ে 8 রান দূরে ছিল, তখন সূর্যকুমার বিদায় নেন। সৌরভ তিওয়ারি কিছুক্ষণ পরে আউট হয়৷ তারপর কাইয়ন পোলার্ড এবং হার্দিক পান্ডিয়া ভালো শুরু করার পরেও বড় রান করতে ব্য’র্থ হন।