৪ বলে ৪ উইকেট নিয়ে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করলেন আফ্রিদি

পাকিস্তান দলের ইংল্যান্ড সফর শেষে দেশে ফিরে যাননি শাহিন আফ্রিদি। যোগ দিয়েছেন ইংলিশ কাউন্টি ক্রিকেটে। হ্যাম্পশায়ারের হয়ে ভাইটালিটি ব্লাস্ট টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে এবার তিনি দারুণ এক কাণ্ড ঘটিয়ে দিয়েছেন। পাকিস্তানের ২০ বছর বয়সী বাঁহাতি পেসার পরপর ৪ বলে তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট। প্রতিটি বলেই তিনি ব্যাটসম্যানকে বোল্ড করেছেন। পাকিস্তানের প্রথম ও সবমিলিয়ে ষষ্ঠ বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে টানা চার বলে চার উইকেট নেয়ার রেকর্ড গড়লেন আফ্রিদি।

গতকাল রবিবার রাতে টেবিলের নিচের দিকের দুই দল মিডলসেক্স ও হ্যাম্পশায়ারের মধ্যকার ম্যাচে আফ্রিদি এই ইতিহাস গড়েন। টানা ছয় ম্যাচ হারা হ্যাম্পশায়ার ওই ম্যাচের আন্ডারডগ ছিল। শেষ ম্যাচ জিতে ইতিবাচকভাবে টুর্নামেন্ট শেষ করার লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৪১ রানে থামে হ্যাম্পশায়ারের ইনিংস। সহজ লক্ষ্য পায় মিডলসেক্স। কিন্তু বাস্তবতা ছিল ভিন্ন। ১৪২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১৪ ওভারের মধ্যে মাত্র ৮০ রানে তারা ৬ উইকেট হারিয়ে বসে।

ষষ্ঠ উইকেটটি শিকার করেন শাহিন আফ্রিদি। এরপর সপ্তম উইকেট জুটিতে মাত্র ৩ ওভারে ৩৯ রান যোগ করে ফেলেন জন সিম্পসন ও টম হেম। ইনিংসের ১৮তম ওভারে বল করতে আসেন আফ্রিদি। তখন জয়ের জন্য ১৮ বলে ২৩ রান করতে হতো মিডলসেক্সকে।সেই ওভারের প্রথম বলে সিঙ্গেল নেন সিম্পসন, দ্বিতীয় বলে ফের স্ট্রাইকে ফিরেন তিনি। এরপর আর ব্যাটিং প্রান্তে যেতে পারেননি হেম। আগের ছয় ম্যাচে ১৯১ রান মাত্র ১ উইকেট নেওয়া শাহিন আফ্রিদি তখন অন্যরূপে ধরা দেন।

ওভারের তৃতীয় বলে ৪৮ রান করা সিম্পসনকে সরাসরি বোল্ড করে জুটি ভাঙেন শাহিন আফ্রিদি। এরপর বাকি তিন বলে স্টিভেন ফিন, থিলান ওয়ালাভিতা ও টিম মুরতাঘকেও সরাসরি বোল্ডের মাধ্যমে পূরণ করেন নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল হ্যাটট্রিক। ভাইটালিটি ব্লাস্ট তো বটেই, ইংল্যান্ডের মাটিতেও এটি প্রথম ডাবল হ্যাটট্রিকের রেকর্ড।

শাহিন আফ্রিদির এই জাদুকরী চার বলে কল্যাণে ২০ রানে নিজেদের শেষ ম্যাচ জিতে নেয় হ্যাম্পশায়ার। শাহিন আফ্রিদি নিয়েছেন মাত্র ১৯ রানে ৪ উইকেট।