মার্কিন ঘাঁটিতে চীনের বিমান হা’মলা!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি ডামি ঘাঁটিতে হা’মলার ভি’ডিও প্রকাশ করেছে চীনের বিমানবাহিনী। ভি’ডিওতে দেখা যাচ্ছে, চীনের ‘এইচ-৬কে’ বোমারু বিমানের সাহায্যে যুক্তরাষ্ট্রের ওই ঘাঁটিতে হা’মলা চালানো হচ্ছে। ঘাঁটিটি প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ গুয়ামে অবস্থিত অ্যান্ডারসন ঘাঁটি বলেই অনেকে মনে করছেন। ভি’ডিওটি মার্কিন গণমাধ্যমেও গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশিত হয়েছে। তাইওয়ানকে কেন্দ্র করে আমেরিকার সঙ্গে আঞ্চলিক উত্তে’জনা বাড়ার মধ্যে চীনের এ ভি’ডিও প্রকাশ পেল।

ভি’ডিওটি চীনের ‘পিপলস লিবারেশন আর্মি’র বিমানবাহিনীর ওয়েইবো অ্যাকাউন্টে প্রকাশ করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার তাইওয়ান সফরকে ঘিরে ক্ষো’ভের বহিঃপ্রকাশ ঘটাতেই চীন এই মহড়া চালাচ্ছে। তাইওয়ান প্রণালীতে চীনের সামরিক মহড়ার দ্বিতীয় দিনে এটি প্রকাশ করে বেইজিং। বিমান ঘাঁটিসহ যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ কিছু সামরিক স্থাপনা আছে গুয়ামে। একে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক শক্তির একটি প্রধান কেন্দ্র হিসাবে দেখা হয়।

এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে যে কোনো সংঘা’তের জবাব দেওয়ার জন্য গুয়ামের এই স্থাপনাগুলো গুরুত্বপূর্ণ। ২ মিনিট ১৫ সেকেন্ডের চীনের বিমানবাহিনীর নকল হাম’লার ভি’ডিওটিতে হলিউড সিনেমার ট্রেলারের মতো নাটকীয় বাজনার সঙ্গে সঙ্গে দেখানো হয়, এইচ-৬ বিমান একটি মরুভূমির ঘাঁটি থেকে উপরে উঠছে। তারপর অর্ধেক পথ পেরোতেই এক পাইলট বোতাম টিপে সমুদ্রের ধারের কোনো একটি রানওয়েতে ক্ষে’পণা’স্ত্র ছুড়ে দেন। ছুড়ে দেয়া ক্ষে’পণা’স্ত্র রানওয়েতে পড়ে। একটি স্যাটেলাইট চিত্রে তা দেখানো হয়।

ছবিতে রানওয়েটি অবিকল অ্যান্ডারসন ঘাঁটির মতোই মনে হয়েছে। বিমান থেকে তোলা ক্ষে’পণা’স্ত্র আছড়ে পড়ে বি’স্ফো’রিত হওয়ার দৃশ্য দেখানোর পাশাপাশি ভি’ডিওটিতে দেখানো হয় মাটিও প্রকম্পিত হচ্ছে। আর এই কাঁপুনির সঙ্গে সঙ্গে বন্ধ করা হয় বাজনাও।চীনের ওপর চাপ বাড়াতে সম্প্রতি তাইওয়ানের সঙ্গে সহযোগিতা বাড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। গত ১৭ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) তিন দিনের সফরে তাইওয়ান পৌঁছান যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি কেইথ ক্রাচ।

বিগত চার দশকের মধ্যে তাইওয়ান সফরে আসা মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের সবচেয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা তিনি। এই সফর নিয়ে ক্ষো’ভ প্রকাশ করতে নিজেদের দাবিকৃত তাইওয়ান প্রণালীতে টানা তিন দিন যু’দ্ধবিমানের মহড়া দেয় চীন।