কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে বিশ্বমানের ফাস্ট বোলার হতে চান তাসকিন আহমেদ

শ্রীলঙ্কা সিরিজকে সামনে রেখে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পুরোদমে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। দীর্ঘদিন পর বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্যাম্পে সুযোগ পেয়েছেন ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদ। তবে আগের তাসকিনের থেকে বর্তমান তাসকিন আহমেদের আকাশ-পাতাল ব্যবধান রয়েছে।

গত দুইদিন ধরে অনুশীলনের নিয়মিত বোলিং করেছেন তাসকিন আহমেদ। অনুশীলনে তামিম ইকবাল লিটন দাসকে বেশ অনেকটাই ভুগিয়েছেন তিনি। আগের থেকে আরো বেশি গতিতে বর্তমানে বোলিং করতে পারছেন তাসকিন আহমেদ। লকডাউন এর সময় ফিটনেস নিয়ে অনেক কাজ করেছেন তাসকিন আহমেদ।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যার কিছু ভিডিও তিনি প্রকাশ করেছিলেন। আগের থেকে অনেক ওজন কমিয়েছেন তিনি। তবে উন্নতির শেষ নেই বলে জানিয়েছেন তাসকিন আহমেদ। ক্যারিয়ারে আরো উন্নতি করতে চান তিনি। আজ অনুশীলনের ফাঁকে বাংলাদেশের এই স্পিডস্টার জানিয়েছেন, “ফিটনেসে আগের চেয়ে উন্নতি হয়েছে।

তবে উন্নতির তো শেষ নেই। বিশ্বমানের হতে হলে, আরও ধারাবাহিক হতে হলে কঠোর পরিশ্রম সবসময় করে যেতে হবে। আসলে এখনই শেষ নয়। সামনে আরও ভালো কিছু হবে, আশা করছি। আমি আমার চেষ্টা, ধারাবাহিকতা ধরে রাখার চেষ্টা করব যে আরও উন্নতি হয় ও ভালো করতে পারি।”

বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন ২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের। ২০১৮ সালের মার্চে, শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফি সবশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন তিনি। গত মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দলে সুযোগ পেলেও সেরা একাদশে জায়গা পাননি তাসকিন আহমেদ। তবে আগের থেকে অনেক ভালো ছন্দে আছেন তিনি এটাই জানালেন।

“ আগের থেকে ভালো ছন্দ এসেছে। ভালোও লাগছে। পেস, সিম পজিশন, এসব নিয়ে কাজ করছি কোচদের সঙ্গে। আগের থেকে উন্নতি হয়েছে। আল্লাহ যদি সুস্থ রাখেন, আগের চেয়ে আরও উন্নতি হবে। নিশানা, গতি, সিম পজিশন, এসব আরও ভালো হবে।”

বোলার হলেও দলের প্রয়োজনে অবদান রাখতে ব্যাটিং নিয়েও কাজ করছেন তাসকিনরা। সামনেই শ্রীলঙ্কা সফর। টেস্ট সিরিজটি বাস্তবায়িত হলে লঙ্কান মাটিতে ব্যাটিংয়ের চ্যালেঞ্জ নিতে হতে পারে বোলারদেরও।

তাসকিন জানান, ‘আজকে আমাদের সব বোলারদের ব্যাটিং সেশন ছিল। উপভোগ করেছি। কঠিন ছিল, তবে এই চ্যালেঞ্জ নেওয়া শিখতে হবে। টেল এন্ডাররা ব্যাটসম্যানদের সাপোর্ট দিতে হলে আমাদের উন্নতি করতে হবে। আমরাও চেষ্টা করছি, আগের থেকে উন্নতি হচ্ছে। আশা করি সামনে টেল এন্ডাররা আরও ভালো করবে।’