যুবককে গাছে বেঁধে প্লাস দিয়ে একে একে ভা’ঙা হলো আঙুল

চোর সন্দেহে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে এক যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে অমান’বিক নি’র্যাতন করা হয়েছে। ছাগল চু’রির অপ’বাদ দিয়ে তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে প্লাস দিয়ে চেপে আঙুল ভে’ঙে দেওয়া হয়। এ ঘটনার একটি ভি’ডিও শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। নির্যা’তনকারী কামারখন্দ উপজেলার জামতৈল কলেজপাড়া গ্রামের মাছের পোনা ব্যবসায়ী হ্যাপি হোসেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

ঘটনার পর তিনি গা-ঢাকা দিয়েছে। ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ভি’ডিওতে দেখা যায়, যুবককে রশি দিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে প্লাস দিয়ে তার হাতের আঙুল ভা’ঙছেন হ্যাপি। এসময় যুবকটির আর্ত’চিৎকারেও নির্যা’তন থামেনি। পরে হ্যাপি যুবককে বলেন, ‘তোর দুইটা আঙ্গুল ভা’ঙছি, বাকিদের নাম না বললে সবগুলো আঙুল ভা’ঙবো, তার আগে ছাড়বো না।

স্থানীয়দের বার বার নিষেধ সত্ত্বেও প্রায় দু’ঘণ্টা নির্যা’তনের পর ওই যুবককে ছেড়ে দেন হ্যাপি। এ বিষয়ে কামারখন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান শহিদুল্লাহ সবুজ বলেন, ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমরা দেখেছি। এটি খুবই বর্বর ও অমা’নবিক। কোনভাবেই এই ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না। পুলিশকেও বিষয়টি তাৎক্ষ’ণিক জানিয়েছি।

কামারখন্দ থানার ওসি রফিকুল ইসলাম শনিবার সকালে জানান, ভি’ডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখে পুলিশ হন্যে হয়ে নি’র্যাতনকারীকে খুঁজছে। নি’র্যাতিত যুবক ও নি’র্যাতনকারী হ্যাপিকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।