আমেরিকার যেকোনও বি’দ্বেষী পদক্ষেপের ‘অনুশোচনামূলক জবাব’ দেওয়া হবে : ট্রাম্পকে ইরানের হুঁশিয়ারি

ইরানের সর্বোচ্চ নেতার সামরিক উপদেষ্টা ও সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হোসেইন দেহকান হুঁ’শিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, তার দেশের বিরু’দ্ধে আমেরিকার যেকোনও বি’দ্বেষী পদক্ষে’পের ‘অনুশোচনামূলক জবাব’ দেওয়া হবে। তিনি ‘সিংহের লেজ নিয়ে না’ড়াচাড়া করা’র ব্যাপারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সতর্ক করে দিয়েছেন।

ইরানের কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার লে. জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হ’ত্যার পক্ষে সাফাই গেয়ে সম্প্রতি ট্রাম্প জাতিসংঘে যে বক্তব্য দিয়েছেন দেহকান তার বিরু’দ্ধে প্রতিক্রি’য়া জানাতে গিয়ে এ হুঁ’শিয়ারি উচ্চারণ করেন। সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী বৃহস্পতিবার ইরানের পশ্চিমাঞ্চলীয় হামেদান প্রদেশে দেওয়া এক বক্তৃতায় বলেন, “যে জাতিসংঘের হওয়া উচিত ছিল শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার কেন্দ্রবিন্দু সেখানে দাঁড়িয়ে ট্রাম্প গর্বের সঙ্গে জেনারেল সোলাইমানিকে হ’ত্যার নি’র্দেশ প্রদানের কথা ঘোষণা করেন।

অথচ এই ট্রাম্পই আবার নিজেকে বিশ্ব নেতা, মানবা’ধিকার ও সভ্যতার বিনির্মাণকারী দাবি করেন।” ট্রাম্পের সরাসরি নি’র্দেশে চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি জেনারেল সোলাইমানিকে ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ড্রো’ন হা’মলা চালিয়ে হ’ত্যা করে মার্কিন সেনারা। এমন সময় তাকে শহীদ করা হয় যখন তিনি ইরাক সরকারের আমন্ত্রণের রাষ্ট্রীয় অতিথি হিসেবে বাগদাদ সফরে গিয়েছিলেন।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতার সামরিক উপদেষ্টা দেহকান আরও বলেন, “আমেরিকা এ পর্যন্ত তার কৃতক’র্ম থেকে অনেক শিক্ষা পেয়েছে। তারপরও ধারণা করা হচ্ছে দেশটি কিছু ভুল ও অপরিপক্ক হিসাব-নিকাশের ওপর ভি’ত্তি করে ইরানের বিরু’দ্ধে নতুন করে একটি ফ্র’ন্ট গঠনের চেষ্টা করছে। কিন্তু আমেরিকার এই পদক্ষেপের অনু’শোচনামূলক জ’বাব দেওয়া হবে।”