মুমূ’র্ষু স্বামীর জন্য র’ক্ত দেয়ার কথা বলে স্ত্রীকে ধ’র্ষণ

রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি মু’মূর্ষু স্বামীর জন্য র’ক্ত সংগ্রহ করতে গিয়ে এক গৃহবধূ ধর্ষ’ণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ধ’র্ষক ও তার সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-২। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে মিরপুরের ফ্ল্যাট থেকে তাদের গ্রে’ফতার করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-২ এর এএসপি আবদুল্লাহ আল মামুন। অভিযুক্তরা হলেন- মো. মনোয়ার হোসেন ওরফে সজীব (৪৩) এবং ধ’র্ষণে সহায়তাকারী মাশনু আরা বেগম ওরফে শিল্পীকে (৪০)।

জানা গেছে, গত ১৫ সেপ্টেম্বর অসুস্থ স্বামীকে ঢাকা সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে মেডিসিন বিভাগে ভর্তি করায় নির্যা’তিতা ওই নারী। এরপর ওই নারী দ্বিতীয় তলার ব্লা’ড ব্যাংকের সামনে র’ক্তের বিষয়ে জানতে চাইলে মনোয়ার হোসেন সজীব র’ক্তের ব্যবস্থা করে দিবে বলে মিরপুরের বাসায় নিয়ে ধর্ষ’ণ করে। মে’রে ফেলার ভয় দেখানোয় ভুক্তভোগী ধ’র্ষণের বিষয়টি গো’পন রাখে।

এরপর আবার ২৪ সেপ্টেম্বর ভিকটিমের স্বামীর মোবাইলে কল করে র’ক্তের ব্যবস্থা হয়েছে জানিয়ে ভিকটিমকে আবার যেতে বলে। এরপর বিষয়টি সামনে আসলে র‌্যাবের কাছে অভিযোগ করা হয়। র‌্যাব অভিযোগের সত্যতা পেয়ে মিরপুর থেকে ধ’র্ষণকারী মনোয়ার হোসেন সজীব ও তার সহযোগী মাশনু আরা বেগম শিল্পীকে গ্রে’ফতার করে । প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রে’ফতারকৃত আ’সামি মো. মনোয়ার হোসেন সজীব ভিকটিমকে ধ’র্ষণ করার কথা স্বীকার করে। এই ঘটনায় মিরপুর মডেল থা’নায় একটি মা’মলা হয়েছে।

গ্রে’ফতার মনোয়ার হোসেন ওরফে সজীবের বাড়ি লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ থা’নায়। সে বর্তমানে শ্যাওড়াপাড়ার একটি বাসায় ভাড়া থাকে। তার মা অসুস্থ থাকায় সে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতা’লে গিয়েছিল। স্বামী পরিত্য’ক্ত মাশনু আরা বেগম শিল্পীর বাড়ি ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় বর্তমানে মধ্য মনিপুরের শিফা ভিলায় ভাড়া থাকে।

সূত্র: সময় নিউজ।