সুশান্তের সঙ্গে থাইল্যান্ড যাওয়ার কথা স্বীকার করলেন সারা

সুশান্ত সিং রাজপুতের সঙ্গে থাইল্যান্ড ট্রিপে যাওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছে সারা। ভারতের মাদ’ক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)’র জেরায় এই ঘটনার কথা স্বীকার করেন সারা আলি খান। তবে মাদ’ক নেওয়ার কথা অস্বীকার করেছেন সারা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে এমনটাই জানা গেছে। ভারতের সংবাদমাধ্যম জি-নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সুশান্তের ফার্ম হাউসের পার্টিতে উপস্থিত থাকার কথা শ্রদ্ধার পাশাপাশি সারাও স্বীকার করে নেন।

এ ছাড়াও শ্রদ্ধা ও সারা দুজনেই এনসিবিকে জানান, সুশান্তের ফার্মহাউস পার্টিতে ড্রি’ঙ্ক সার্ভ করা হয়েছিল, তবে তাঁরা মা’দক নেননি। সুশান্ত ও সারার থাইল্যান্ডে বেড়াতে যাওয়ার কথা প্রথমবার প্রকাশ্যে এনেছিলেন সুশান্তের বাড়ির কর্মী স্যামুয়েল হওকিপ। পরে এ-ও শোনা গিয়েছিল, শুধু সারা যাবে বলেই সুশান্ত নাকি চাটার্ড বিমান ভাড়া করেছিলেন। সুশান্তের ফার্মহাউসের ম্যানেজার জানিয়েছিলেন, থাইল্যান্ডে থেকে ফিরে সুশান্ত ও সারা ফার্মহাউসে উঠেছিলেন।

যখনও তাঁরা ফার্মহাউসে যেতেন ৩ থেকে ৪দিন কাটিয়ে ফিরতেন বলেও জানিয়েছিলেন ফার্মহাউসের ম্যানেজার।  এরপর রিয়া এনসিবিকে জানিয়েছিলেন, ‘কেদারনাথ’ ছবিতে কাজ করার সময় সারা ও সুশান্ত মাদ’ক নিতেন। যদিও শনিবার মাদ’ক নেওয়ার কথা সারা অস্বীকার করেছেন। প্রসঙ্গত, শনিবার এনসিবিকে শ্রদ্ধা জানিয়ছেন, সুশান্তের পাবনার ফার্ম হাউস পার্টিতে মোট ৫-৬জন উপস্থিত ছিলেন। সেখানে ড্রি’ঙ্ক সার্ভ করা হচ্ছিল।