ভিপি নুর-ড. কামাল হোসেনরা দেশের শত্রু, তাদের দেশে থাকার দরকার নেই : ছাত্রলীগ সভাপতি

ডাকসুর সদ্য সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ‘অবা’ঞ্ছিত’ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। একই সঙ্গে ধ’র্ষণ মাম’লার সব আসা’মিকে অবা’ঞ্ছিত করেছে সংগঠনটি। গতকাল রোববারটিএসসি সংলগ্ন রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ধ’র্ষণের ঘটনায় দো’ষীদের বি’চারের দাবিতে এক বি’ক্ষোভ সমা’বেশ থেকে ছাত্রলীগ নেতারা এই ঘোষণা দেন।

সংবাদ মাধ্যম ও সুশীল সমাজের সমালোচনা করে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন,ড. কামাল হোসেন ধ’র্ষকদের বলে তাদের আই’নি সহা’য়তা দেবেন। এ ধরনের লোকদের যারা আ’ইনি সবহায়তা দেয়, তাদরকে বয়’কট করতে হবে। আমি আই’নের ছাত্র হিসেবে ল’জ্জিত, তারা নাকি বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য লড়েছেন। আমরা তো বিশ্বাস করি না। তারা বঙ্গবন্ধুকে নিয়েও কথা বলেন। এই নুরু গঙরা, ড. কামাল হোসেনরা রাষ্ট্রের শত্রু।

তাদের এ দেশে থাকার কোনো অধিকার নাই। তাদেরকে বয়ক’টের এখন সময় এসেছে। আমরা এই ক্যাম্পাসে তাদের অবা’ঞ্ছিত ঘোষণা করছি।’ মিডিয়ার সমালোচনা করে ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, ‘‘আামাদের মিডিয়া, তথাক’থিত শিক্ষক, সুশীল সমাজ সিলেটে এমসি কলেজে ধর্ষ’ক কে এটা দেখে, বারবার ছাত্রলীগকে দোষা’রোপ করে। ধ’র্ষকের তো কোনো দল নেই। সে যেই হোক, সে নিকৃ’ষ্টতম প্রাণী, সে কু’লাঙ্গার। তাদের অবশ্যই বি’চার করতে হবে।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ আয়োজিত এ সমা’বেশে শ্ববিদ্যালয় ও হল শাখাগুলোর ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের দুই শতাধিক নেতা-কর্মীর পাশাপাশি কেন্দ্রীয় নেতারাও উপস্থিত ছিলেন। সংবাদমাধ্যমের সমালোচনা করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, “গণমাধ্যমের কর্মীদের আমি বলতে চাই, আপনারা সিলেক্টিভ নৈতি’কতা না দেখিয়ে, আপনার নৈ’র্ব্যত্তিক নৈতি’কতা দেখান। সিলেট এমসি কলেজের ঘটনা পত্রি’কার লিড হবে, আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যায়ের ছাত্রী ধর্ষ’ণের ঘটনা নিম্নভাবে উপস্থাপন হবে, তা কেন?

বিষয়টি আপনার ভেবে দেখবেন। ডাকসুর ভিপি নাটকবাজ নূর একেক সময় একেক কথা বলছে। তারা কথায় কোনা হিসাব মিলছে না।গণমাধ্যমের কাছে অনুরোধ সব ঘটনা যেন সমান গুরুত্ব পায়।”