চলন্ত বাসে সারা রাত গণধ’র্ষণের পর ছুঁড়ে ফেলা হল রাস্তায়

গত ১ মাসে ভারতের উত্তরপ্রদেশে এই নিয়ে তৃতীয় বার চলন্ত মাসে মহিলা যাত্রীকে ধ’র্ষণের ঘটনা ঘটল। ফের একবার ২০১২ সালে দিল্লির নির্ভয়া কা’ণ্ডের ছায়া উত্তরপ্রদেশে, এবার ঘটনাস্থল মিরাট। চলন্ত বাসে রাতভর গণধ’র্ষণের শিকার হলেন এক মহিলা যাত্রী, তারপর চলন্ত বাস থেকে তাঁকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হল দিল্লি রোডে!

গত এক মাসের মধ্যে এই নিয়ে তৃতীয় বার এহেন পাশবিক, নক্কারজ’নক, ভয়’ঙ্কর ঘটনার সাক্ষী থাকল উত্তরপ্রদেশ, যেখানে দিল্লিগামী চলন্ত বাসে যাত্রীকে গণধ’র্ষণের অভি’যোগ উঠল বাসের কর্মীদের বিরু’দ্ধে। শনিবার সকালে অচৈ’তন্য অবস্থায় দিল্লি রোড থেকে উ’দ্ধার করার পর মহিলাকে নিয়ে যাওবা হয় হাসপাতালে। জ্ঞা’ন ফেরার পর তিনি পুরো ঘটনাটি জানান। পুলিশের কাছে দায়ের করা অভিযো’গে নির্জা’তিতা জানিয়েছেন, শুক্রবার রাতে বৈশালী বাসস্ট্যান্ড থেকে দিল্লিগামী ওই বাসে উঠেছিলেন তিনি।

বাসে তাঁকে ঠা’ন্ডা পানীয় খেতে দেওয়া হয়, তার পরই জ্ঞান হারান তিনি। এর পর সারা রাত ধরে বাসের চালক ও কনডা’ক্টর তাঁকে ধ’র্ষণ করে। নির্জা’তিতা মহিলা বিরাটের সরধনা টাউনের বাসিন্দা। পুলিশ অভি’যোগকারিণীর বয়ান রেকর্ড করেছে এবং মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য তাঁকে পাঠানো হয়েছে।

মিরাটের এসএসপি অজয় সাহানি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন অভিযুক্তদের খোঁজ চলছে। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।-নিউজ১৮।