সমর্থকদের দাবি শুনে অবাক করা যুক্তি দিলেন চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি

আইপিএল এর ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসকে ৪৪ রানে হারিয়েছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। ১৭৬ রান তাড়া করতে গিয়ে একা ফাফ ডু প্লেসিস ছাড়া যেভাবে চেন্নাইয়ের বাকি ব্যাটসম্যানগুলি ব্যক্তিগত স্বার্থে ব্যাটিং করছিল, তাতে সন্দেহ ছিল, আদৌ ম্যাচ জিততে চাইছে তো তিনবারের আইপিএল জয়ী ফ্র্যাঞ্চাইজি!

কিন্তু গতকালও ব্যাটিং অর্ডারে অনেকটাই পিছনে নেমেছিলেন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ছয় নম্বরে নামলেও খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি ধোনি। ১২ বলে মাত্র ১৫ রান করেছিলেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক। আর তারপরই তার ফর্ম নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। তাদের স্পষ্ট বক্তব্য, বড় রান তাড়া করতে নেমে কেন এত পিছনের দিকে নামছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি।

এমনকি এই নিয়ে প্রশ্নও তুলেছিলেন গৌতম গম্ভীর। গত রাজস্থান ম্যাচ নিয়ে ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গম্ভীর বলেছিলেন, “সত্যি বলতে গেলে আমি অবাক হয়েছিলাম। মহেন্দ্র সিং ধোনি সাত নম্বরে ব্যাট করছে? আর ঋতুরাজ গায়কোয়াড় ও স্যাম কারানকে ওর আগে আসার সিদ্ধান্তটি আমার মাথায় ঢুকছে না। বলা বাহুল্য, তোমাকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে হবে। আর এটিকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়া বলে না। ২১৭ রান তাড়া করতে গিয়ে সাত নম্বরে নামছ ব্যাটিং করতে? খেলা শেষ হয়ে গিয়েছিল তখনই, একা ফাফ ডু প্লেসিসই লড়ে যাচ্ছিল।”

কিন্তু এবার সমর্থক ও ক্রিকেটপ্রেমীদের এই প্রশ্নের জবাব দিয়েই দিলেন ক্যাপ্টেন কুল মহেন্দ্র সিং ধোনি। দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে নামার আগে টসের সময়ে তিনি দিলেন জবাব। জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার মাইক নিকোলাস যখন তাকে জিজ্ঞাসা করেন, “ভারতের অনেকেই চাইছেন যাতে আপনি উপরের দিকে ব্যাটিং করতে আসুন, বিশেষ করে চেন্নাই সুপার কিংস সমর্থকরা।” এর জবাবে প্রাক্তন ভারতীয় উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান বলে উঠলেন, “দলের জন্য যেটা ভালো, আমরা সেটাই করব। এটাই আমাদের স্ট্র্যাটেজির একটি অংশ। তাই আপনি অপেক্ষা করুন আর দেখুন।”

এর ফলে আদৌ ধোনি আগে নামবেন কিনা, সেই নিয়ে তিনি বল সরাসরি টিম ম্যানেজমেন্টের কোর্টে পাঠিয়ে দিলেন। একাধিক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ তথা ক্রিকেটপ্রেমীরা যখন চাইছেন যে আরও একটু আগে এসে ধোনি ব্যাট করতে নামুক, তখন মহেন্দ্র সিং ধোনি কিন্তু রয়েছেন নিজের মেজাজেই।