মসজিদে ডেকে নিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষ’ণ

কক্সবাজারে টেকনাফ উপকূলীয় ইউনিয়ন বাহারছড়ায় এক শিশুকে মসজিদে ডেকে নিয়ে ধ’র্ষণ করেছেন তার শিক্ষক। তাকে আ’টক করা হয়েছে। ভুক্তভোগী স্থানীয় একটি মাদ্রাসার ছাত্রী। আ’টক শিক্ষক নুরুল হক ওই মাদ্রাসারই শিক্ষক। গতকাল বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটার পর মুমূ’র্ষু অবস্থায় ভুক্তভোগীকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আ’টক নুরুল হক টেকনাফ সদর ইউনিয়নের উত্তর লেঙ্গরবিল গ্রামের আবদুল মুনাফের ছেলে। বাহারছড়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওলানা আজিজ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, শিশুটিকে নুরুল হক মসজিদে ডেকে নিয়ে ধর্ষ’ণ করে ফেলে রেখে যায়। কিন্তু বিষয়টি প্রশাসনকে অবহিত না করে স্থানীয়ভাবে ধামা’চাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন মেয়েটির বাবা। পরে শিশুর অবস্থার অবনতি হলে রাতে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়।

মাওলানা আজিজ আরও বলেন, বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকাবাসী ক্ষু’দ্ধ হয়ে ওঠে। খবর পেয়ে মাদ্রাসা শিক্ষক নুরুল পালিয়ে যান। পরে এলাকাবাসীর সহায়তায় পুলিশ রাতে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মাঠপাড়া পাহাড়ি এলাকা থেকে তাকে আ’টক করে।

ভুক্তভোগী শিশুটির চাচা জানান, গতকাল বিকেলে মাদ্রাসার পাশের জমিতে ছাগল আনতে যায় তার ভাতিজি। এ সময় শিক্ষক নুরুল হক তাকে মসজিদে ডেকে নিয়ে যান। সেখানে তার ঘরে নিয়ে ধ’র্ষণ করেন। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় তার ভাতিজি বাড়ি এসে ঘটনা খুলে বলে।

টেকনাফ থা’নার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে রাতে ধ’র্ষককে আ’টক করে থা’নায় নিয়ে আসি। আ’ইনগত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

সূত্র: আমাদের সময়।