এবার ‘কালো ডাইনি’ বলা হয়েছে শাহরুখকন্যাকে

সম্প্রতি ব’র্ণবৈ’ষম্যের শিকার হয়েছেন শাহরুখ খানের মেয়ে সুহানা খান। এ নিয়ে তিনি একটি স্ক্রিনশটও প্রকাশ করেছেন। সে স্ক্রিনশটে তার গায়ের রঙয়ের জন্য তাকে আক্র’মণ করা হয়েছে। স্ক্রিনশটটি দিয়ে সুহানা জানিয়েছেন, ১২ বছর বয়স থেকে তাকে কুৎ’সিত বলা হয়েছে গায়ের রংয়ের জন্য যা তার কাছে বেশ যন্ত্র’ণাদায়ক ছিল। সুহানার মতে, ভারতীয়দের মতোই তার গায়ের রং। আর নিজের দেশের মানুষের গায়ের রং অপছন্দ করা মানে নিরাপ’ত্তাহীনতায় ভোগা।

সুহানা যে স্ক্রিনশট শেয়ার করেছেন সেখানে দেখা যাচ্ছে তাকে কালো, কালো ডাইনি, কুৎসিত বলে আ’ক্রমণ করা হয়েছে। কেউ লিখেছেন, আপনি মোটেই সুন্দরী নন। ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্টের মাধ্যমে সুহানা দাবি করেছেন, বর্ণ’বৈ’ষম্য বন্ধ হওয়া উচিত। নিজের গায়ের রং ও উচ্চতা নিয়েও তিনি খুশি বলে জানান।

ইনস্টাগ্রাম পোস্টে সুহানা লিখছেন, চারপাশে এই বিষয়ে অনেক কিছুই ঘটছে আর এটা বন্ধ হওয়া উচিত। এটা শুধু আমার বিষয়ে নয়। যে সকল অল্প বয়সি ছেলে মেয়েরা কোনও কারণ ছাড়াই আমার মতো হীনমন্য়তা নিয়ে বড় হয়েছে তাদের জন্যও। এখানে কিছু কমেন্ট রাখা থাকল। প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ ও নারীরা আমায় ১২ বছর বয়স থেকে কুৎ’সিত বলে এসেছে। অনেকে দাবি করেছিলেন শাহরুখ কন্যা নাকি নিজের স্কিন টোন লাইট করার চেষ্টা করেছেন। উত্তরে সুহানা জানান, কখনওই নিজের গায়ের রং ফর্সা করার চেষ্টা করেননি এবং করবেন না।

সুহানা একটি স্ক্রিন শট শেয়ার করেছে, সেখানে দেখা যাচ্ছে তাকে কালো ডাইনি, কুৎ’সিত বলে আক্র’মণ করা হয়েছে, আবার কেউ লিখেছেন আপনি মোটেই সুন্দরী নন। এইসব পো’স্টের কমেন্টের মাধ্যমেই তিনি ব’র্ণবি’দ্বেষের ওপরে প্রশ্ন করেছেন। এই সব যে দেশে বন্ধ হওয়া উচিৎ সেটা ইনস্টাগ্রাম পো’স্টের মাধ্যমে দাবি করেছেন।

তিনি ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, আমি ১২ বছর থেকেই এই সব কিছুর শিকার হচ্ছি, চারপাশে যেটা ঘটছে এসব বন্ধ হওয়া উচিৎ। যে সব অল্প বয়সের মেয়েদের এমনভাবে আ’ক্রমণ করে, তারা কিন্তু হীন’ম্যতায় ভোগে। তাই এসব বন্ধ হওয়া উচিৎ।

সূত্র: সময় নিউজ।