মুখ খুললেই বলা হবে মুসলিম তোয়াজ করছি : মমতা ব্যানার্জী

ভারতের উত্তরপ্রদেশের হাথরাস ধ’র্ষ’ণ কা’ণ্ডের প্রতি’বাদে শনিবার পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী পদযাত্রা করলেন। কলকাতা শহরের বিড়লা তারামন্ডল থেকে শুরু হয়ে পদযাত্রা শেষ হয় গান্ধী মূর্তির পাদদেশে।

মমতা তার ভাষণে বলেন, দিল্লির দা’ঙ্গায় কত মানুষ মা’রা গেছে। জলাশয়ে কত দেহ ফেলে দেয়া হয়েছে তার ইয়ত্তা নেই। অথচ এ ব্যাপারে কিছু বললেই বিজেপি বলবে, মুসলিম তো’ষণ হচ্ছে। এদিন পান্ডেমিক এর কারণে সামাজিক অনুশা’সন মেনে পদযাত্রা হয়। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে দলিত তরুণীকে ধ’র্ষ’ণ করে খু’ন নিয়ে প্রশ্ন তুলে আগেই সরব হয়েছিলেন মমতা।

এদিন মমতার বক্তৃতা শুনে মনে হয়েছে, রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের বেশ কিছুটা আগেই প্রচারের রাজনৈতিক সু’রটি বেঁধে দিলেন তৃণমূল নেত্রী। হাথরসের ঘ’টনাকে সামনে রেখে গ্রামে গ্রামে প্রচারে ঝাঁ’পিয়ে পড়ার নির্দে’শও দিলেন তৃণমূল কর্মীদের। শেষ বার পদযাত্রা করেছিলেন লোকসভা ভোটের প্রচারে।

দী’র্ঘ সময় পেরিয়ে করোনা পরি’স্থিতির মধ্যেই ফের পথে নামলেন মমতা। কেন এই পরি’স্থিতিতেও পথে নামতে হল, তার ব্যাখ্যা দিয়েছেন তিনি। বলেছেন, ”আমরা অতিমা’রির জন্য রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করছিলাম না। অথচ বিজেপি দী’র্ঘদিন ধ’রেই রাজনৈতিক কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আমরা বা’ধ্য হয়ে মিটিং-মিছিল করছি।”

হাথরসের ঘ’টনা প্রসঙ্গে দিল্লির হিং’সার কথাও এ দিন তুলে তার অ’ভিযো’গ, ”বিজেপি সকলের পদবি নিয়ে খেলা করছে। দেশের দলিত, সংখ্যাল’ঘুদের উপর অ’ত্যা’চার হচ্ছে। কৃষকদের ভাতে মা’রার চেষ্টা হচ্ছে। অথচ এই সুযোগে একের পর এক রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বিক্রি করে দেওয়া হচ্ছে।”