হোয়াইট হাউজে ফিরে সবাইকে অভয় দিলেন ট্রাম্প

এক সময় করোনা ভাই’রাসকে কিছুই মনে করতেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল ট্রাম্প। সেই ট্রাম্পই করোনা ভাই’রাসে আ’ক্রান্ত। তবে খুশির খবর হচ্ছে হাসপাতাল থেকে হোয়াইট হাউসে ফিরেছেন তিনি। ফিরেই সবাইকে অভয় দিলেন। সবাইকে করোনা ভাই’রাস ভয় না পাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, সোমবার হোয়াইট হাউসে ফিরে ছবি তোলার জন্য দাঁড়িয়ে ট্রাম্প তার সার্জিক্যাল মাস্ক খুলে ফেলেন। হোয়াইট হাউসে ফেরার পর তার অনুভূতি কী, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে ট্রাম্প বলেন, সত্যিকারের ভালো। রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসির নিকটবর্তী সামরিক হাসপাতাল থেকে হেলিকপ্টার যোগে হোয়াইট হাউসে ফেরেন ট্রাম্প।

এ সময় সাদা রঙের সার্জিক্যাল মাস্ক পরা ছিলেন তিনি, কিন্তু হোয়াইট হাউসের দক্ষিণ চত্বরের সিঁড়ি দিয়ে বারান্দায় ওঠার পর তিনি মাস্ক খুলে ফেলে ছবি তোলার জন্য দাঁড়ান, স্যালুট দেন ও বুড়ো আঙুল উঁচিয়ে সব কিছু ঠিক আছে বলে আভাস দেন। টেলিভিশনের ফুটেজে দেখা গেছে, তারপর তিনি ফিরে হোয়াইট হাউসের ভেতরে ঢুকে যান আর তখনও মাস্কটি তার পকেটে ঢোকানো ছিল।

রেকর্ড করা এক ভি’ডিও বার্তায় তিনি বলেছেন, এটাকে আপনার ওপর আধিপত্য করতে দেবেন না। এটাকে ভয়ও পাবেন না। আমরা ফিরছি, আমরা কাজে ফিরছি। এটাকে আপনার ওপর আধিপত্য করতে দেবেন না। এ থেকে বের হয়ে আসনু, সতর্ক থাকুন।

এর আগে ডোনাল্ড ট্রাম্প চারদিনের জরুরি চিকিৎসা শেষে সোমবার হাসপাতাল থেকে হোয়াইট হাউসে ফিরেছেন। হোয়াইট হাউসে ফিরেই তিনি নির্বাচনী প্র’চারণায় ফিরে যাওয়ার অঙ্গীকার করেন। গত বৃহস্পতিবার ট্রাম্পের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। এরপর তাকে জরুরিভিত্তিতে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নি’র্বাচনের আর একমাসও বাকি নেই। এখনও জনমত জরিপে ট্রাম্প তার প্রতিদ্ব’ন্দ্বী ডেমোক্রেট দলের জো বাইডেনের চেয়ে পিছিয়ে রয়েছেন। হোয়াইট হাউসে ট্রাম্পের ফেরার অর্থ নি’র্বাচনী লড়াইয়ে শামিল হতে তিনি এখন শারী’রিকভাবে ঠিক আছেন। এমনটাই মনে করছেন বিশ্লেষকরা। ট্রাম্পও টুইট করে বলেন, আমরা নি’র্বাচনী প্রচারণায় খুব শিগগিরই ফিরছি।

এদিকে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেও তার ডাক্তার সিন কনলে বলেছেন, ট্রাম্প ফিরে এসেছেন। কিন্তু আরও এক সপ্তাহের জন্যে তিনি বি’পদমুক্ত নন।