রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন: তিন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকের প্রস্তাব চীনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে বেইজিংয়ে বাংলাদেশ, মিয়ানমার ও চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকের প্রস্তাব দিয়েছে চীন। রোববার ঢাকায় চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের সময় এ প্রস্তাব দেন। তবে চীনের প্রস্তাবিত ওই বৈঠকে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চিকে উপস্থিত করার প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ।

সোমবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন তার দপ্তরে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, রোহিঙ্গা সমস্যাটা অনেক দিন ধরে এক জায়গায় আটকে আছে। চীনের উদ্যোগে ত্রিপক্ষীয়ভাবে আলোচনা শুরু হয়েছিল। করোনার কারণে সেই আলোচনা আর এগোচ্ছে না। এ নিয়ে চীনের রাষ্ট্রদূতও উদ্বেগ জানিয়েছেন। চীনও প্রত্যাবাসনের বিষয়ে একমত।

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে রাজি হওয়ার পরও মিয়ানমার তাদের নিচ্ছে না। এ জন্য চীনও দুঃখ প্রকাশ করেছে। তারা এ বিষয়ে মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনার কথা জানিয়েছে। তিন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক প্রসঙ্গে আব্দুল মোমেন আরো বলেন, আমরা তো এই বৈঠকে যেতে রাজি আছি। তবে চীনের রাষ্ট্রদূতকে প্রস্তাবিত বৈঠকে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চিকে উপস্থিত করানো উচিত বলে জানিয়েছি।

তিনি না হলে হবে না। রাষ্ট্রদূত বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছেন। চীনের রাষ্ট্রদূত ওই বৈঠক নিয়ে একটা প্রস্তাব দিয়ে গেছেন।

সূত্র: ইন্ডিপেন্ডেন্ট নিউজ।