মেসির রেকর্ড, বার্সার গোল উৎসব, ব্যর্থ নেইমার

করোনার এই মহামারীতে আরো একটি উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শুরু হলো। আর ইউরোপের এই আসরে আবারো দেখা গেল আগুনঝরা ফুটবল। দর্শকশূন্য গ্যালারির এই হাহাকারেও তারকা ফুটবলাররা জ্বলে উঠেছেন আপন প্রচেষ্টায়। বার্সেলোনার জাদুকর লিওনেল মেসি পেনাল্টি থেকে গোল করেছেন ও আরেকটি গোলে রেখেছেন ভূমিকা।

৬৮ মিনিটে পিকে লাল কার্ড পেলে ১০ জনের বার্সেলোনা ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ফেরেঙ্কভারোসিকে। বার্সেলোনার ভবিষ্যত আনসু ফাতি ১৭ বছর বয়সে গোলের দেখা পেলেন। চ্যাম্পিয়নস লিগে এটা বিরল ঘটনা। রাতের হাইভোল্টেজ ম্যাচে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইকে ২-১ গোলে হারিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। নেইমার ও এমবাপ্পে ব্যর্থ হয়েছেন গোল করতে।

লিওনেল মেসি ক্যারিয়ারে টানা ১৬ মৌসুমে বার্সেলোনার হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে গোল করলেন। রায়ান গিগসের পর মেসিই প্রথম এই রেকর্ড করলেন। আর ক্লাবের হিসেবে ফেরেঙ্কভারোসি ৩৬তম। ৩৬টি ভিন্ন ক্লাবের হয়ে গোলের ইতিহাস এখন মেসির। তবে চলতি মৌসুমে এখনো ওপেন ফিল্ডে কোনো গোল করেননি তিনি। দেশ ও ক্লাবের হয়ে সর্বশেষ ১১টি গোলের ৬টিই এসেছে পেনাল্টি থেকে। বার্সেলোনার হয়ে মেসি ছাড়া এই ম্যাচে গোল করেছেন ফাতি, কোটিনহো, গনজালেস ও ডেম্বেলে। মেসি ডেম্বেলের গোলে ভূমিকা রেখেছেন।

অন্য ম্যাচে ম্যানইউর বিপক্ষে মার্শিয়ালের আত্মঘাতি গোলে সমতায় ফেরে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই। ব্রুনো ফার্নান্দেজ পেনাল্টি থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে এগিয়ে দিয়েছিলেন। ৮৭ মিনিটে ইউনাইটেডের মার্কাস রাশফোর্ড জয়সূচক গোলটি করেন। রাতের অপর ম্যাচে চেলসি-সেভিয়া ড্র করেছে। ল্যাজিও ৩-১ গোলে হারায় বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে।-আমাদের সময়।