এবার ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের পাশে দাঁড়ালেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

ইতালির প্রধানমন্ত্রী জুইসেপ্পে কন্তে সোমবার বলেছেন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর প্রতি তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তায়েপ এরদোয়ানের মন্তব্য ‘অগ্রহণযোগ্য’ এবং তিনি প্যারিসের সঙ্গে ‘সংহতি’ জ্ঞাপন করছেন।

ইসলাম ও বাক স্বাধীনতা নিয়ে আঙ্কারা ও প্যারিসের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে টুইট করে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের প্রতি একাত্মতা জানিয়েছেন কন্তে। তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর প্রতি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান যে শব্দ প্রয়োগ করেছেন তা অগ্রহণযোগ্য।

ম্যাক্রোঁর প্রতি ‘পূর্ণ সংহতি’ প্রকাশে ফরাসি ভাষায় করা ওই টুইটে কন্তে আরও বলেন, ব্যক্তিগত অপমান তুরস্কের সঙ্গে ইইউ যে ইতিবাচক এজেন্ডা অনুসরণ করতে চায় তা প্রতি সহায়ক নয়, বরং এটা দূরে সরিয়ে দেয়।

স্কুলে বাক স্বাধীনতার শিক্ষা দিতে গিয়ে মুহাম্মদ (সা.) এর বিতর্কিত কার্টুন দেখান স্যামুয়েল প্যাটি নামের ৪৭ বছর বয়সী ইতিহাস ও ভূগোলের একজন শিক্ষক। এ ঘটনায় প্যাটিকে মাথা কেটে হত্যা করে ১৮ বছর বয়সী চেচনীয় বংশোদ্ভূত আব্দুল্লাখ আনজোরোভ। পরে পুলিশের গুলিতে নিহত হয় আনজোরোভ।

কিন্তু ইসলামী মূল্যবোধকে অপমানিত করে এমন কার্টুন ছাপানো থেকে ফ্রান্স বিরত থাকবে না বলে মন্তব্য করেছেন ম্যাক্রোঁ। এরপর ম্যাক্রোঁর কঠোর সমালোচনা করে ফরাসি প্রেসিডেন্টের ‘মানসিক চিকিৎসা’ দরকার বলে মন্তব্য করেন এরদোয়ান।

সূত্র: আরটিভি অনলাইন।