এবার যেকোনো হুমকি মোকাবিলায় সেনাবাহিনীকে সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

সংবিধান ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা এবং দেশের প্রতি যেকোনো হুমকি মোকাকিলায় সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার সকালে সেনাবাহিনীর ৩টি ব্রিগ্রেড সদর দপ্তর এবং ৫টি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে তিনি এই নির্দেশ দেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ কারো সাথে শত্রুতা চায়না, বন্ধুত্ব চায়। কিন্তু কারো দ্বারা আক্রান্ত হলে তা মোকাবিলায় প্রস্তুতি রাখা জরুরি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দেশের মানুষের ভরসা ও বিশ্বাসের প্রতীক। সেভাবেই মানুষের আস্থা অর্জন করেই আপনাদের এগিয়ে যেতে হবে। তিনি আরো বলেন, সেনাবাহিনীর সদস্য হিসেবে দেশের জন্য কাজ করার লক্ষ্যে সর্বপ্রথম দরকার হচ্ছে পেশাদারিত্ব এবং প্রশিক্ষণ। আর এই পেশাদারিত্বের কাঙ্ক্ষিত মান অর্জনের জন্য আপনাদের সকলকে পেশাগতভাবে দক্ষ, সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবোধে উদ্বুদ্ধ হয়ে সৎ এবং মঙ্গলময় জীবনের অধিকারী হতে হবে।

পবিত্র সংবিধান ও দেশমাতৃকার সার্বভৌমত্ব রক্ষা করার জন্য আপনাদের ঐক্যবদ্ধ থেকে অভ্যন্তরীণ কিংবা বাহ্যিক যেকোনো ধরনের হুমকি মোকাবিলার জন্য সদা প্রস্তুত থাকতে হবে। আমরা তৈরি থাকতে চাই।

সেনাবাহিনীকে বিশ্বের শক্তিশালী বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে নানা উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান শেখ হাসিনা। এসময় করোনা মোকাবিলাসহ দুর্যোগ দুর্বিপাকে সেনা সদস্যদের ভূমিকার প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী।

সূত্র: ইন্ডিপেন্ডেন্ট নিউজ।