এ বিষয়ে বলা নিষেধ আছে : অধরা খান

চলতি প্রজন্মের চিত্রনায়িকা অধরা খান। এরইমধ্যে কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। করোনাকালীন সময়ের শুরু থেকে বেশিরভাগ সময় এ নায়িকা ঘরবন্দি সময় কাটিয়েছেন। যদিও একটি ছবির শুটিং তিনি মাঝে করেছিলেন। তবে কয়েকদিন শুটিংয়ের পর তা বন্ধ হয়ে যায়। এদিকে নতুন আরো একটি সিনেমার কাজ শেষ করেছেন তিনি সম্প্রতি। করোনার সময়ে অসহায়দের দিকে সহযোগীতার হাতও বাড়িয়ে দিয়েছিলেন অধরা। এখনও সেই ধারা অব্যাহত আছে।

এদিকে অধরা অভিনীত ও শাহিন সুমন পরিচালিত ‘পাগলের মতো ভালোবাসি’ ছবিটি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। এখনকার ব্যস্ততা নিয়ে এ নায়িকা বলেন, করোনার মাঝে সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড পরিচালিত ‘কোভিড-নাইন্টিন ইন বাংলাদেশ’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্রের শুটিং করেছিলাম। এখানে আমার নায়ক বাপ্পী। ছবিতে আমি একজন চিকিৎসকের চরিত্রে কাজ করছি। তবে এর শুটিং এখন বন্ধ রয়েছে। কবে নাগাদ শুটিং শুরু হবে তা পরিচালক বলতে পারবেন।

এছাড়া সামনে অপূর্ব রানার ‘উন্মাদ’ ছবিতে কাজ করবো। আর নতুন একটি সিনেমার কাজ শেষ করলাম। টানা শুটিং করেছি এর। ২৬ তারিখ শুট শেষ হয়েছে। সিনেমাটি সম্পর্কে এখনই কিছু বলতে চাই না। এ বিষয়ে বলা নিষেধ আছে। খুব দ্রুতই পরিচালকসহ পুরো টিম আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাধ্যমে জানাবে সব। তবে চমক থাকবে এখানে।

এছাড়া আরো কিছু নতুন ছবি নিয়ে কথা হচ্ছে। ব্যাটে বলে মিললে করবো। এ পর্যন্ত চলচ্চিত্রে কাজ করে কেমন অভিজ্ঞতা হলো? অধরা উত্তরে বলেন, আমার প্রথম ছবি মুক্তি পায় ২০১৮ সালে। তারও দুই বছর আগে ক্যামেরার সামনে দাড়াই। সেই হিসেবে আমার ক্যারিয়ার খুব বেশি দিনের নয়।

তবে ভালো অভিজ্ঞতা অর্জন হয়েছে এই সময়ে। অনেক কিছু শিখেছি, জেনেছি, বুঝেছি। তবে এই বছর করোনা সব কিছু এলোমেলো করে দিলো। শুটিং শুরু হয়েছে, হলও খুলেছে। তবে করোনা পরিস্থিতি ঠিক না হওয়া পর্যন্ত সিনেমার অবস্থাও বোধহয় ঠিক হবে না। দোয়া করি যেন সব স্বাভাবিক হয়। সিনেমা জীবনে তো অনেক প্রেম করা হয়েছে। বাস্তব জীবনের খবর কি? অধরা বলেন, সিনেমাতে অনেক প্রেম করেছি। বাস্তব জীবনে তা হয়নি। দেখা যাক সামনে কি হয়!

সূত্র : মানবজমিন।