গেইলকে সেঞ্চুরি করতে দেবেন না! সাত বছর আগেই জানান আর্চার, হতবাক বিশ্ব

৬ ম্যাচ আগে প্রথম একাদশে অন্তর্ভুক্তির পর থেকেই বিধ্বংসী ফর্মে রয়েছেন গেইল। রয়্যালসদের বিপক্ষে তাঁর ৬৩ বলে ৯৯ রানের ইনিংস সাজানো হাফডজন বাউন্ডারি এবং আটটা বিশাল ছক্কায়। গেইলকে সেঞ্চুরি করতে দেবেন না, তার আগেই আউট করবেন। তা সাত বছর আগেই ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন। ঠিক তা-ই হল।

জোফ্রা আর্চারের অতীতের টুইট হঠাৎই ভাইরাল করল রাজস্থান রয়্যালস। আর্চারের সাত বছর আগের ভবিষ্যৎবাণীই দেখা গেল আইপিএলে। যা নিয়ে অবাক সবাই। এর আগে এমনিতে জোফ্রা আর্চারের অতীতের টুইট একাধিকবার মিলে গিয়েছে। এবারের গেইলের তান্ডব থামানো টুইটও অবিকল মিলে গেল। আইপিএলে যা যা চমক।

আইপিএলের ৫০তম ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব মুখোমুখি হয়েছিল রাজস্থান রয়্যালসের। প্লে অফে ওঠার লড়াইয়ে এই ম্যাচ ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ ছিল শুধু দুই দলের কাছে নয়, অন্যান্য দলের কাছেও। টসে জিতে কিংসদের ব্যাট করতে পাঠায় রাজস্থান নেতা স্টিভ স্মিথ।

এই ম্যাচেই তুখোড় ব্যাটিং করেন গেইল। মাত্র ১ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করেন। তবে আউট হওয়ার আগে দলকে ভালো জায়গায় বসিয়ে দেন অধিনায়ক কেএল রাহুলের সঙ্গে ১২০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে। ৯৯ রানের মাথায় আর্চারের পারফেক্ট ইয়র্কার গেইলের স্ট্যাম্প ছিটকে দেয়। সেঞ্চুরি মিস করে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন ক্যারিবীয় তারকা। মাঠে ব্যাট ছোঁড়ার শাস্তি হিসেবে জরিমানাও করা হয় তাঁকে।

এরপরেই আর্চারের ২০১৩ সালের জোড়া টুইট ভাইরাল হয়ে যায়। যেখানে আর্চারের প্রথম টুইটের বয়ান ছিল, “যদি বল করতাম ওকে সেঞ্চুরি করতে দিতাম না।” দ্বিতীয় টুইটটি আবার ২০১৬ সালের। যেখানে আর্চার উপদেশ দেওয়ার ভঙ্গিতে লিখেছিলেন, “এভাবে নিজেকে চোট দিয়ে ফেল না।”

দুটো টুইটই শুক্রবারের ম্যাচের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ। দ্বিতীয় টুইটটি যেন গেইলকে উদ্দেশ্য করে লেখা, ব্যাট ছুড়ে যেন নিজেকে আহত না করেন না তিনি। এই টুইটগুলি শেয়ার করে রাজস্থান রয়্যালস নিজেদের টুইটার একাউন্টে।

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।