মার্কিন নির্বাচনে ভোট দিলেন সাকিব পত্নী শিশির

বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাসীন রাষ্ট্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলছে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। আজ মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) সকাল থেকেই শুরু হয়েছে নির্বাচনের ভোট প্রদান। যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হওয়ায় নির্বাচনে ভোট প্রদান করেছেন বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির।

আজ দুপুরে উইসকনসিনে নিজের ভোট দিয়ে ভক্তদের সাথে বিষয়টি ভাগাভাগি করেন সাকিব পত্নী। ভোট দিয়ে ফেসবুক একাউন্ট থেকে নিজের হাতে নির্বাচনের একটি স্টিকারযুক্ত ছবি পোস্ট করে শিশির লেখেন ‘ইলেকশন ডে, আমি আমার ভোট দিয়েছি।’

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এরইমধ্যেই আগাম ভোট দিয়েছেন ৯ কোটির বেশি ভোটার। আশা করা হচ্ছে, আজ আরো কমপক্ষে আট-নয় কোটি মানুষ ভোট দেবেন। কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে, সর্বত্র ভোট নিরাপদে হবে কি না, কী হবে নির্বাচনের পর?

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে দেশটির নাগরিকদের তো অবশ্যই, সারা বিশ্বের মানুষের উৎসাহ, আগ্রহ ও উত্তেজনা নতুন কিছু নয়। কিন্তু এবারের নির্বাচনে যুক্ত হয়েছে সহিংসতা ও অনিশ্চয়তার উদ্বেগ–আশঙ্কা। অতীতে অনিশ্চয়তা ছিল ফলাফল নিয়ে—কে জেতেন, কে হারেন। কিন্তু সবাই প্রায় নিশ্চিত ছিলেন, ফল যা–ই হোক, সে ফলাফলে নাগরিকেরা খুশি হন বা না হন, পরদিন তাঁরা দৈনন্দিন জীবনে ফিরে যাবেন।

তাঁরা অপেক্ষা করবেন ২০ জানুয়ারির, নতুন প্রেসিডেন্টের শপথের দিনের। কিন্তু এবার প্রশ্ন, সবার ভোট গণনা হবে কি না, কী হবে নির্বাচনের দিন, কী হবে নির্বাচনের অব্যবহিত পরে, সামনের দিনগুলোয় দেশ কোথায় যাবে। সহিংসতার আশঙ্কায় বিভিন্ন শহরে দোকানপাটের দেয়াল বোর্ড দিয়ে সুরক্ষার ব্যবস্থা হচ্ছে। কমপক্ষে ১০টি অঙ্গরাজ্যে ন্যাশনাল গার্ড ইতিমধ্যে নির্বাচনবিষয়ক মিশনের জন্য পরিকল্পনা করেছে। আরও ১৫টিতে সেই ব্যবস্থার কথা ভাবা হয়েছে।

সূত্র: কালের কণ্ঠ অনলাইন।