এবার সৌম্য-লিটনের জন্য বিশেষ অনুমতি চাইবে বিসিবি

বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপ দিয়ে করোনাকালের মাঝেই দেশের মাটিতে ক্রিকেট ফিরিয়েছে বিসিবি। এবার আরও বড় পরিসরে হতে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ। এ মাসের মাঝামাঝি সময়ে এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। তবে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে দলের দুই তরুণ ওপেনার লিটন কুমার দাস আর সৌম্য সরকারকে নিয়ে।

তিন দলের সেই প্রতিযোগিতা চলার কারণে দূর্গাপূজার ছুটি পাননি সৌম্য ও লিটন। টুর্নামেন্ট শেষে তাদের ছুটির অনুমোদন দিয়েছে বিসিবি। ছুটি পেয়ে দুই ক্রিকেটার সস্ত্রীক দুবাই উড়াল দিচ্ছেন। তাদেরকে ৪ নভেম্বর থেকে ১১ নভেম্বর পর্যন্ত ছুটি দিয়েছে বোর্ড। এরই মধ্যে সোমবার দুবাইয়ের উদ্দেশে দেশ ছেড়েছেন লিটন। সৌম্য সরকারের যাওয়ার কথা আছে ৫ নভেম্বর। ছুটি কাটিয়ে এসেই দুজনে যোগ দেবেন অনুশীলনে।

কিন্তু বাংলাদেশ সরকারের করোনা বিধির কারণে সামান্য সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। নিয়মানুযায়ী, বিদেশ ফেরত যাত্রীদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। সেক্ষেত্রে দুজনের ১৫ তারিখ টুর্নামেন্ট শুরু হলে খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হবে। এই সমস্যার সমাধান সম্পর্কে বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী জানিয়েছেন, ‘আসলে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনের বিষয়টি সরকারের সিদ্ধান্ত। সেটি যদি সরকার বাধ্যতামূলক করে, তা করতেই হবে।

তবে আমরা যেটা করছি, সরকারকে জরুরি ও জাতীয় প্রয়োজনে চিঠি দিচ্ছি। যেমন আমাদের চিঠি পেয়ে কোচদের কোয়ারেন্টিন শিথিল করেছে। এখন সৌম্য ও লিটনকে নিয়ে আমরা চিঠি দেব, যেন শিথিল করা হয়। সরকার যদি মনে করে তারা আমাদের জাতীয় প্রয়োজন, তাহলে তারা সেইভাবে সিদ্ধান্ত নিবে।’

সূত্র: কালের কণ্ঠ অনলাইন।