সাকিবের সামনে ৩ চ্যালেঞ্জ

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা সাকিবের জন্য প্রথম চ্যালেঞ্জ হলো ফিটনেস ফিরে পাওয়া। এক বছর খেলা থেকে দূরে ছিলেন। স্বাভাবিকভাবেই একটা অনভ্যস্ততা তৈরি হবেই। সোমবার তার ফিটনেস পরীক্ষা নেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এ বিষয়টি নিয়ে অবশ্য সাকিব খুব একটা চিন্তিত নন। কারণ মাসখানেক আগে বিকেএসপিতে নিবিড় অনুশীলনের সময় এই বিষয় নিয়েই কাজ করেছেন তিনি।

আগামী এক বছর অনেক খেলা। সে চ্যালেঞ্জ নিতে তৈরি হওয়ার জন্যই বিকেএসপিতে প্রস্তুতি নিয়েছেন সাকিব। ফিটনেস ফিরে পাওয়ার সঙ্গে সাকিবের আরেকটি প্রাথমিক চ্যালেঞ্জ হবে জাতীয় দলের ড্রেসিংরুমে মানিয়ে নেওয়া। জুয়াড়ির সঙ্গে যোগাযোগের কথা গোপন করার দায়ে আইসিসির শাস্তি পাওয়া একজন খেলোয়াড়ের সঙ্গে সতীর্থরা কি আগের মতো মন খুলে মিশবেন?

সব বিষয়ে তার ওপর আগের মতো নির্ভর করবে? জাতীয় দলের প্রায় সবার সঙ্গে দারুণ সম্পর্কের কারণে হয়তো এ ব্যাপারে খুব একটা সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে না তাকে। তবে ফিটনেস ফিরে পাওয়া এবং ব্যাটে-বলে আগের মতো দাপুটে পারফর্ম করাটা তার জন্য একটা চ্যালেঞ্জ।

উদাহরণ হিসেবে মোহাম্মদ আশরাফুলের কথা বলা যায়। তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরার পর আশরাফুলের ফিটনেস সেই আগের মতো ছিল না, তার ব্যাটের ধারও কমে গিয়েছিল। অবশ্য সাকিবের বেলায় সে ঝুঁকিটা কম। তিন বছর একটা লম্বা সময়। আর সাকিবের এক বছরের নিষেধাজ্ঞার সময়ে মহামারীর মধ্যে খেলাও তেমন হয়নি। খুব বেশি খেলা মিস করেননি বলে মানসিকভাবেও একটু ভালো অবস্থায় থাকবেন সাকিব।