বাইডেনের জয়: যা বললেন বিশ্বনেতারা

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন ডেমোক্রেট নেতা জো বাইডেন। তবে ডোনাল্ড ট্রাম্প এই নির্বাচন নিয়ে আইনি লড়াই করার ঘোষণা দিয়েছেন। ডোনাল্ড ট্রাম্প পরাজয় স্বীকার করে নেবার জন্য অপেক্ষা না করেই বিশ্ব নেতারা প্রেসিডেন্ট পদে সদ্য নির্বাচিত জো বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

বিবিসি বাংলা জানায়, জার্মান চান্সেলার এঙ্গেলা মেরকেল বলেছেন তিনি জো বাইডেনের সাথে “ভবিষ্যতে সহযোগিতার” ভিত্তিতে কাজ করার জন্য আগ্রহের সাথে অপেক্ষা করছেন। তিনি বলেন, আমাদের সময়কার যে বিশাল চ্যালেঞ্জগুলো রয়েছে তা মোকাবিলায় আমেরিকা ও ইউরোপ তাদের বন্ধুত্বের সম্পর্ক অটুট রেখে কাজ করবে।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এক টুইট বার্তায় বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, বর্তমানের চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবিলা করতে আমাদের অনেক কাজ করতে হবে। আসুন একসাথে কাজ করি।

স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সাঞ্চেস বলেন তিনি বাইডেন ও কমালা হ্যারিসের সাথে সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করতে আগ্রহী এবং তিনি তাদের অভিনন্দন জানান।

গ্রিসের প্রধানমন্ত্রী কিরিয়াকোস মিটসোটাকিস বলেন, বাইডেন তার দেশের “প্রকৃত বন্ধু”। তিনি প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেবার পর দুই দেশের সম্পর্ক আরো জোরদার হবে এ বিষয়ে আমি নিশ্চিত।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আল খোমেনি অবশ্য এতটা উষ্ণতা প্রকাশ করেননি। তিনি আমেরিকান গণতন্ত্রকে ব্যঙ্গ করে বলেছেন, নির্বাচনের ফলাফল যাই হোক, আমেরিকান প্রশাসনে রাজনৈতিক, নাগরিক ও নৈতিক সব পর্যায়ে নিশ্চিত স্খলন খুবই স্পষ্ট।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বাইডেন ও কমালা হ্যারিসকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করার পর একটি দীর্ঘ বিবৃতি প্রকাশ করেছেন। যাতে তিনি বলেন, কানাডা ও আমেরিকার মধ্যে সম্পর্ক অন্যন্য- যা বিশ্বে ব্যতিক্রমী। দুই দেশের সরকার শান্তি ও ঐক্য প্রতিষ্ঠায়, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনে এবং বিশ্বে জলবায়ু সমস্যার মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করবে।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেন, অস্ট্রেলিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক খুব গভীর। তাদের সাথে সবসময় আমাদের সম্পর্ক স্থিতিশীল ও ইতিবাচক থাকবে। জো কে অনেক অভিনন্দন। আশা করি তার নেতৃত্ব দুই দেশের সম্পর্ক আরো সুন্দর করতে অনুপ্রেরণা জোগাবে।